মুম্বই- যেকোনও চরিত্রে অভিনয় করেই মন জয় করতে পারেন আলিয়া ভাট। অভিনয়ে পারদর্শীতার জন্যই অল্প সময়েই বলিউডের প্রথম সারির নায়িকাদের তালিকায় চলে এসেছেন তিনি। কিন্তু এর মধ্যে ব্যতিক্রম হল করণ জোহর প্রযোজিত ছবি কলঙ্ক। পরিশ্রম করেও বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে এই ছবি। কাজে খামতি না রেখেও যখন এই ছবি এভাবে ফ্লপ হয়, ঠিক কেমন লেগেছিল জানালেন আলিয়া।‌‌‌‌‌

সম্প্রতি মুম্বইয়ের মামি মুভি মেলায় করণ জোহরের কাছে এই কথা খোলসা করেন আলিয়া ভাট। করণই তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, যে ছবি নিয়ে এত আশা ছিল,তা যখন বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ল এবং সোশ্য়াল মিডিয়ায় ট্রলে ভরে গেল, কেমন লেগেছিল। এই পরিস্থিতিতে রণবীরই (কাপুর) বা কী বলেছিলেন। রণবীরের প্রসঙ্গ উঠতেই বরাবরের মতো ব্লাশ করা শুরু করেন আলিয়া।

হাসতে হাসতেই অভিনেত্রী বলেন, মন দিয়ে ও পরিশ্রম করে কোনও কাজ করলেই যে সেটাও তোমায় কিছু ফেরত দেবে, এমনটা মনে করা উচিত না। সেই কাজ সবসময়ে কিছুই না দিতে পারে। একজন অভিনেতা কতটা কর্মঠ এর থেকেই তা বোঝা যায়। একদিন ঠিক কোনও কোনও ছবি ভাল হবে। এই ছবিটা না হলেও, অন্যটা।

আরও পড়ুন – ‘চুম্বনের সময় জিভটা আটকে গিয়েছিল’, স্ত্রী’র জিভ কাটার পর দাবি স্বামীর

রণবীরের এই পরামর্শই মন্ত্রের মতো কাজ করেছিল। আলিয়া জানান। আলিয়া বলছেন, পরিশ্রম করার পরেও যদি কোনও ছবি ভাল না হয়, সেখানে খারাপ লাগার কিছু নেই। পরিশ্রমে খামতি থাকলে তা লাগত। তার চেয়ে বরং পরের ছবিটা কী ভাবে ভাল হয়, সেই দিকে মনোনিবেশ করা উচিত।

কলঙ্ক ছবিতে আলিয়া ছাড়াও ছিলেন তাবড় তাবড় তারকারা। বরুণ ধাওয়ান, আদিত্য রায় কাপুর, সোনাক্ষী সিনহা, মাধুরী দিক্ষীত, সঞ্জয় দত্ত, এমন মাল্টি স্টারার হয়েও ছবিটি বক্স অফিস ও সমালোচক মহল কোথাও প্রশংসা পায়নি।

‌‌প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে রণবীর ও আলিয়া দুজনেই ব্রহ্মাস্ত্র ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত। শোনা যায় এই ছবিতে একসঙ্গে কাজ করতে করতেই সম্পর্কে জড়ান দুজনে। এই মুহূর্তে বি-টাউনে রণবীর ও আলিয়ার বিয়ে নিয়েই সবচেয়ে বেশি গুঞ্জন চলে। কিন্তু ঠিক কবে বিয়ে করবেন, তাঁরা কখনওই তা সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেননি। যদিও কানাঘুষো খবর, ২০২০-তেই সাত পাকে বাঁধা পড়বেন দুজনে।