মুম্বই: করোনার জেরে সারা দেশে লকডাউন চলছে। স্তব্ধ হয়ে রয়েছে গোটা দেশ। কিন্তু তার মধ্যেই বিয়ের তারিখ ঠিক করে ফেললেন রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট। বহুদিন ধরেই তারকা জুটির বিয়ের জল্পনা চলছিল। এবার শোনা যাচ্ছে এবছর অর্থাৎ ২০২০-র ডিসেম্বরেই নাকি বিয়ে করছেন রণবীর-আলিয়া।

সংবাদমাধ্যম মিড-ডের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রথমে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং-এর পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কিন্তু দুই পরিবারই সেই পরিকল্পনা বাতিল করেছে। বরং মুম্বইতেই বসবে রণবীর-আলিয়ার বিয়ের আসর। ডিসেম্বরের শেষ ১০ দিনের মধ্যেই নাকি এই কাজ সম্পন্ন হবে।

ঋষি কাপুরের শরীর এখন আগে থেকে অনেকটাই ভালো আছে। তাই পরিবার আর এই শুভ কাজে দেরি করতে চাইছে না। খুব সম্ভবত ২১ ডিসেম্বর থেকে বিয়ের অনুষ্ঠান শুরু হবে বলে জানা যাচ্ছ। এর পরে টানা ৪ দিন ধরে অনুষ্ঠান চলবে।

তবে বিয়ে সম্পর্কে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি আলিয়া ও রণবীর। এর আগেও তাঁদের বিয়ের খবর ছড়ায়। ২০২০-র ২২ জানুয়ারি নাকি তাঁদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। এমনকী একটি নকল বিয়ের কার্ডও ছড়িয়ে পড়ে।

এছাড়াও সম্প্রতি লকডাউনের মধ্যেই একটি ফ্যানপেজ থেকে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ায়। সেখানে দেখা যায় নিজেদের বাড়ির সামনে একসঙ্গে রণবীর ও আলিয়া। দুজনেই স্পোর্টর অ্যাটায়ারে রয়েছেন। তার পর থেকেই জল্পনা শুরু হয়, রণবীর ও আলিয়া নাকি লকডাউনে একসঙ্গেই থাকছেন। এমনকী আলিয়ার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট দেখেও এমনই জল্পনা করেছেন অনেকে।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে দুজনেই ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত। যদিও আপাতত করোনা ভাইরাসের জেরে ছবির সমস্ত কাজ বন্ধ রয়েছে। কিন্তু এই বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা ব্রহ্মাস্ত্র। এই ছবিতে এই প্রথম একসঙ্গে অভিনয় করেছেন দুজনে। এই ছবিতে অভিনয় করতে গিয়েই ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয় এই তারকা জুটির। এছাড়া রণবীর শামশের ছবির কাজ নিয়েও ব্যস্ত। আলিয়ার হাতে রয়েছে তখত, সড়ক ২, গাঙ্গুবাই কাথিওয়াড়ি-সহ আরও কিছু ছবি।