মুম্বই- নতুন প্রজন্মের অভিনেতাদের মধ্যে প্রভাব ইতিমধ্যেই বেশ প্রভাব ফেলেছেন অভিনেত্রী রকুল প্রীত। বলিউডে কোনও গডফাদার না থাকা সত্ত্বেও এখন তিনি বেশ জনপ্রিয় অভিনেত্রী। শুধু বলিউড নয়, তেলুগু ও তামিল ইন্ডাস্ট্রিতেও বেশ পরিচিত তিনি। কিন্তু নিজের জায়গাটা পাকাপাকি ভাবে তৈরি করা মোটেও এত সহজ ছিল না তাঁর পক্ষে।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের কাছে রকুল জানান, এক সময়ে তাঁকে বডিশেমিং-এর শিকার হতে হয়েছিল। এক সংবাদমাধ্যমের কাছে রকুল প্রীত কেরিয়ারের প্রথম দিকের এমনই এক অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন। রকুলের কথায়, আমায় একজন বলেছিলেন তুমি খুব ভালো। সত্যিই তুমি খুব ভালো। কিন্তু সমস্যা হল তোমার মুখটা খুবই সাধারণ।

তবে এমন মন্তব্য শুনেও দমে যাননি রকুল প্রীত। নিজের কেরিয়ারের বিষয়ে সব সময়ে পসিটিভ থেকেছেন রকুল। আত্মবিশ্বাসের উপর ভর করেই তাই এগিয়ে গিয়েছেন অভিনেত্রী।

রকুল বলছেন, তুমি নিজে কী বিশ্বাস করেছ সেটাই আসল। সবাই আমাকে পছন্দ করবে এটা কখনওই আশা করতে পারি না। অন্য কেউ আমায় অপছন্দ করতেই পারে। কিন্তু আমায় নিজেকে ভালোবাসতে হবে। তুমি যখন নিজেকে ভালোবাসো, নিজে যেমন সেটাকেই গ্রহণ করো তখন সেখানেই অর্ধেক যুদ্ধ যেতা হয়ে যায়।

শুধু বডিশেমিং নয়। বলিউডে লিঙ্গ বৈষম্যেরও শিকার হয়েছেন রকুল। পারিশ্রমিকের ক্ষেত্রে দেখেছেন পুরুষ ও মহিলা অভিনেত্রীদের মধ্যে বিরাট ফারাক। রকুল প্রীত বলছেন, মহিলারাও একই ভাবে পরিশ্রম করেন। জিম যান। সেই অনুযায়ীই পারিশ্রমিক সমান হওয়া উচিত।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই মরজাওয়া নামে একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন রকুল প্রীত।