কলকাতাঃ  শেষ আশাটাও আর রইল না। বারাসত আদালতেও খারিজ হয়ে গেল কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন। ফলে সারদা তদন্তে সিবিআইয়ের হাতে রাজীব কুমারের গ্রেফতারি এখন সময়ের অপেক্ষা। এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

তবে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ার পর সিবিআইয়ের পরবর্তী রণকৌশল কি হবে তা নির্ভর করছে সিবিআইয়ের উপরেই। তবে সূত্রে জানা গিয়েছে, আদালতের এহেন নির্দেশ আসার পরেই রাজীব ইস্যুতে সিবিআইয়ের পদক্ষেপ কি হবে তা নিয়ে একপ্রস্ত আলোচনাও শুরু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

গ্রেফতারি এড়াতে এর আগেই বিভিন্ন আদালতে ঘুরেছেন কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল। প্রায় সব জায়গাতেই ধাক্কা খেয়েছেন তিনি। এমনকি কলকাতা হাইকোর্টও রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ তুলে নিয়েছে। গ্রেফতারের আশঙ্কায় কার্যত পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে ইতিমধ্যে আওয়াজ উঠতে শুরু করেছে বিভিন্নমহল। এই অবস্থায় সোমবার বারাসত আদালতে অন্তবর্তী একটি জামিনের আবেদন করেন রাজীব।

আদালতে আবেদনে তিনি জানান, তদন্তে সব সহযোগিতা করেছেন তিনি। তাই গ্রেফতার যেন তাঁকে না করা হয়। এই আবেদনের পরপরই সুপ্রিম কোর্টে পালটা ক্যাভিয়েট দাখিল করে সিবিআই জানায়, একপক্ষের বক্তব্য যেন না শোনা হয়।

তারপর আজ মঙ্গলবার প্রায় দেড় ঘণ্টা বারাসাত আদালতে সওয়াল-জবাব চলে। তারপরই আগাম জামিনের আর্জি ফিরিয়ে বিচারক বলেন, এই মামলা দক্ষিণ ২৪ পরগনার অধীন। বারাসাত কোর্টের এক্তিয়ার নেই এনিয়ে রায় দেওয়ার।