বেঙ্গালুরু: মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথগ্রহণের দিন পিছিয়ে বুধবার করেছেন কুমারস্বামী৷ প্রথমে সোমবার ২১মে শপথ নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছিল৷ পরে তা পিছিয়ে ২৩মে করা হয়৷ জানা গিয়েছে, গান্ধী পরিবারের জন্য শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান দু’ দিন পিছিয়ে দিয়েছেন ভাবী মুখ্যমন্ত্রী৷

আসলে ২১মে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর মৃত্যুবার্ষিকী৷ ওই দিন সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী সহ তাবড় কংগ্রেস নেতারা দিল্লির বীর ভুমিতে রাজীব গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন৷ এছাড়া দেশ জুড়ে নানা অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রীকে স্মরণ করেন কংগ্রেস কর্মীরা৷ এমন এক দিনে কুমারস্বামীর শরিক দলের সর্বোচ্চ নেতৃত্ব হাজির থাকতে পারবেন না জেনে দিন বদলে ফেলা হয়৷

সংবাদসংস্থা এএনআইকে কুমারস্বামী জানিয়েছেন, তিনি বুধবার শপথ বাক্য পাঠ করবেন৷ আগে এই অনুষ্ঠানটা সোমবার হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু ওই দিন রাজীব গান্ধীর মৃত্যুবার্ষিকী৷ এই দিনে কংগ্রেসীরা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর স্মরণে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে৷ তাই ওই দিন শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করা ঠিক হবে না৷ সেই সঙ্গে তিনি আরও জানান, সোমবার নিজেদের মধ্যে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান নিয়ে আলোচনা করবেন৷

শনিবার আস্থা ভোটের আগে ইয়েদুরাপ্পা মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতেই কুমারস্বামীর কাছে মুখ্যমন্ত্রীর গদিতে বসার দরজা একেবারে খুলে যায়৷ ওই দিন বিকালে রাজ্যপাল বাজুভাই বালার সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের দাবি জানিয়ে আসেন৷ অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সি ছাড়লেও রাজনীতির ময়দান ছাড়েননি ইয়েদুরাপ্পা৷ বিধান সৌধাতে জানান, কর্ণাটকের মানুষের অধিকার লড়াইয়ে সবসময় তিনি পাশে থাকবেন৷ জীবনের শেষ নিশ্বাস অবধি তিনি রাজ্যের মানুষের হয়ে লড়াই করে যাবেন৷

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I