নয়াদিল্লি:  এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিল নির্বাচন কমিশন। রাতারাতি বাংলা থেকে সরিয়ে দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে যেতে বলা হল। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার মধ্যে মন্ত্রকে গিয়ে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পড়ুন আরও- দ্রুত রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিবকে সরানোর নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ জমা পড়ে নির্বাচন কমিশনে। একাধিক রাজনৈতিকদলের প্রতিনিধিরা এই বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করে কমিশনে। অভিযোগ জমা পড়ার পরেই নজিরবিহীনভাবে রাজীব কুমারকে সরিয়ে দেয় কমিশন। এরপরেও দেখা যায়, ভোট চলাকালীন রাজ্য সরকারের হয়ে নেপথ্যে থেকে কলকাঠি নারছেন। আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি এমনই যে এমন নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হল কমিশন।

প্রসঙ্গত, রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে ভুরি ভুরি অভিযোগ রয়েছে। সারদা-কান্ডে তৎকালীন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করতে চেয়েছিল সিবিআই। কিন্তু নজিরবিহীনভাবে তাঁকে বাঁচাতে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ধর্ানায় বসেন। তাঁর ওই ধর্নায় বসা নিয়ে বিতর্কও তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সেই বিতর্কে কান না দিয়ে পুরো বিষয়টি বিজেপি সরকারের ষড়যন্ত্র বলেই দাবি করেছিলেন মমতা।

এদিকে শুধু রাজীব কুমার নয়, নির্বাচন কমিশন সরিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতার ঘনিষ্ঠ বলে অভিযোগ ওঠা রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্যকেও।