জয়পুর: ছন্দে ফিরল রাজস্থান৷ অধিনায়ক বদল হতেই জয়ে ফিরল ডবল আর৷ ঘরের মাঠে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে এদিন রাজস্থান ম্যাচ জিতল ৫ উইকেটে৷

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়েই এদিন রাজস্থান দলের নেতৃত্বে ফেরেন স্টিভ স্মিথ৷ ফ্র্যাঞ্চাইজির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় মরসুমের বাকি ম্যাচগুলিতে রাহানের পরিবর্তে স্মিথই দলকে নেতৃত্ব দেবেন৷

আরও পড়ুন-গেইলের পরামর্শ মেনে কেকেআরের দেনা শোধ করছেন রাসেল

প্রথমে ব্যাট করে রাজস্থানকে এদিন ১৬২ রানের টার্গেট ছুঁডে় দেয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ ডি’ককের ৬৫ আর সূর্যকুমার যাদবের ৩৪ রান ছাড়া মুম্বইয়ের হয়ে বাকিরা বলার মতো রান পাননি৷ পোলার্ড-রোহিতরা ফ্লপ করেন৷ ১৫ বলে ২৩ রানের ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন হার্দিক পান্ডিয়া৷ জয়পুরে এদিন অবশ্য হার্দিকের বিধংসী ব্যাটিং দেখা গেল না৷ রাজস্থানের হয়ে জোফরা আর্চার ৪ ওভারে কৃপণতম বোলিং করে ২২ রানে ১টি উইকেট তুলে নেন৷ বাকিদের মধ্যে শ্রেয়স গোপাল ২টি, সুয়ার্ট বিনি ও উনাদকট ১টি করে উইকেট পেয়েছেন৷

আরও পড়ুন- কোটলায় গেইল ঝড়, দিল্লিকে লড়াকু স্কোর চ্যালেঞ্জ পঞ্জাবের

মুম্বইয়ের ১৬১ রানের ইনিংসের জবাবে সঞ্জু-রাহানের জুটিতে শুরুতেই ৩৯ রানের মজবুত ভিত গড়ে রাজস্থান৷ পরে যদিও ধারাবাহিকভাবে উইকেট হারিয়ে একসময় চাপে পড়ে যায় ডবল আর৷ সেখান থেকে ৫৯ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন কাপ্তান স্মিথ৷

চতুর্থ উইকেটে ১৭ বছরের রিয়ান পরাগের সঙ্গে ৭০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন অজি ক্রিকেটার৷ এই পার্টনারশিপে ভর করেই সহজে ম্যাচ জিতে নেয় রাজস্থান৷ স্টিভের ৪৮ বলের ৫৯ রানের ইনিংস সাজানো ৫টি চার ও ১টি ছয় দিয়ে৷ দুরন্ত ব্যাটিংয়ের সুবাদে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন স্মিথ৷  ২৯ বলে ৪৩ রান করে তাঁকে যোগ্য সংগত দেন পরাগ৷

আরও পড়ুন- কোহলির নতুন ডাক নামে মজে অনুরাগীরা

ঘরের মাঠে এদিন ৫ বল বাকি থাকতেই প্রয়োজনীয় রান তুলে নিয়ে জয়ের ছন্দে ফিরল রাজস্থান৷ লিগে এই নিয়ে রাজস্থানের এটি তৃতীয় জয়৷ এর আগে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে ম্যাচ জিতেছিল রাজস্থান৷ অন্য ম্যাচে ওয়াংখেড়েতে মুম্বইকে হারিয়েছিল স্টোকসরা৷ এই নিয়ে লিগে দুই ম্যাচেই মুম্বইকে হারাল রাজস্থান৷

আরও পড়ুন-হার্দিক-লোকেশকে অভিনব শাস্তি বোর্ডের