জয়পুর: তেল চুরি ও পাচারের অভিযোগে ৩১ জনকে গ্রেফতার করল রাজস্থান পুলিশ৷ কয়েক বছর ধরে এই চক্র ভারতের বৃহত্তম উপকূলবর্তী তেল ক্ষেত্র থেকে কাঁচা তেল চুরি করে তা বাইরে পাচার করত৷ এখনো পর্যন্ত প্রায় ৫০ কোটি টাকার তেল পাচার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানতে পেরেছে৷ জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তেল সংস্থার কর্মীদের৷ ঘটনাস্থল রাজ্যের বারমেঢ়৷

টানা ছয় বছর ধরে এই চক্র রাজস্থানের তেল খনি থেকে কাঁচা তেল চুরি করে তা বাইরে বিক্রি করছিল৷ এই চক্রের জাল বহুদূর বিস্তৃত৷ তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে, জলের ট্যাঙ্কারে করে ভেতর থেকে তেল বাইরে আনা হত৷ আর একাজে মদত যোগাতো সংশ্লিষ্ট তেল সংস্থার ট্রাক চালকরা৷ স্থানীয় এক সংবাদপত্রে বলা হয়েছে, প্রায় ৫০ মিলিয়ন লিটার তেল এভাবে চুরি হয়েছে যার বাজার মূল্য কমপক্ষে ৪৯ কোটি টাকা৷ ওই তেল সংস্থার ৭৫ জন চালক ও ঠিকাদার এই পাচার কান্ডে জড়িত বলে সন্দেহ পুলিশের৷

সম্প্রতি ওই তেল সংস্থার পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়৷তদন্তে নেমে পুলিশ তেল চুরি চক্রের হদিশ পায়৷ জানা গিয়েছে, জল ব্যবহার করার ট্যাঙ্কারে কাঁচা তেল ভরা হত৷ পরে সাইট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর চালকরা গাড়ির জিপিএস ডিভাইস বন্ধ করে দিতেন৷ এরপর ওই তেল দুটি ছোট ফ্যাক্টরিতে নিয়ে যাওয়া হত৷ ওই ফ্যাক্টরির মাটির নীচের ট্যাঙ্কে তেল জমা করে রাখা হত৷সুযোগ বুঝে ওই তেল বাইরে বিক্রি করা হত৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ