জয়পুর: বোলারদের দাপটে রাজস্থানের বিরুদ্ধে রঞ্জি ম্যাচের প্রথম দিনেই চালকের আসনে দেখাচ্ছিল বাংলাকে৷ দ্বিতীয় দিনে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ছবিটা বদলে যায় পুরোপুরি৷ ভয়ানক ব্যাটিং বিপর্যয়ে দ্বিতীয় দিনের শেষে বাংলাকেই ব্যাকফুটে দেখাচ্ছে৷ তবে আশার কথা এই যে, ব্যাটসম্যানদের খামতি ঢেকে বোলাররাই ম্যাচ বাংলার নাগাল থেকে বেরিয়ে যেতে দেননি৷

সোয়াই মানসিং স্টেডিয়ামে রাজস্থানকে প্রথম ইনিংসে ২৪১ রানে গুটিয়ে দেয় বাংলা৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম দিনের শেষে তারা ১ উইকেটের বিনিময়ে ৪৭ রান তোলে৷ দ্বিতীয় দিনে তার পর থেকে খেলা শুরু করে বাংলা প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় মাত্র ১২৩ রানে৷ অর্থাৎ প্রথম ইনিংসের নিরিখে ১১৮ রানে পিছিয়ে পড়েন অভিমন্যু ঈশ্বরনরা৷

আরও পড়ুন: ম্যাচ হেরে বড় শাস্তির মুখে টিম ইন্ডিয়া

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে রাজস্থান দ্বিতীয় দিনের শেষে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৬ রান তুলেছে৷ অর্থাৎ, বাংলার থেকে আপাতত ২৭৪ রানে এগিয়ে রয়েছে হোম টিম৷ তৃতীয় দিনে যত দ্রুত সম্ভব রাজস্থানের লেজ ছেঁটে ফেলতে পারলে, বাংলার সরাসরি জয়ের সম্ভাবনা জিইয়ে থাকবে৷ যদিও ম্যাচের গতিপ্রকৃতির দিতে তাকালে বাংলার কাজটা সহজ হবে না নিশ্চিত৷

বাংলার হয়ে প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ৩৮ রান করেন ওপেনার কৌশিক ঘোষ৷ অভিষেক রামন করেন ৩১ রান৷ অনুষ্টুপ মজুমদার ১৭ ও শাহবাজ আহমেদ ১৬ রানের যোগদান রাখেন৷ দু’অঙ্কের রান করতে পারেননি আর কেউই৷ অভিমন্যু ঈশ্বরন ২, মনোজ তিওয়ারি ২, শ্রীবৎস গোস্বামী ৩ ও মুকেশ কুমার অপরাজিত ১ রান করেন৷ খাতা খুলতে পারেননি অর্ণব নন্দী, আকাশ দীপ ও নীলকান্ত দাস৷

আরও পড়ুন: সেডন পার্কে নতুন রেকর্ড নিউজিল্যান্ডের

রাজস্থানের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৬ রান করেন রাজেশ বিষ্ণোই৷ নীলকান্ত দাস ২৬ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নিয়েছেন ২টি উইকেট দখল করেন আকাশ দীপ৷ প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেওয়া মুকেশ কুমার দ্বিতীয় ইনিংসে এখনও পর্যন্ত ১টি মাত্র উইকেট দখল করেছেন৷ ১টি উইকেট অর্ণব নন্দীর৷