কলকাতা: মারণ করোনায় আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। ভয়ঙ্কর প্রভাব ভারতেও। আতঙ্ক ছড়িয়েছে এরাজ্যেও। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আগামী সোমবার থেকে রাজ্যের সব সরকারি-বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার।

শিক্ষকদের আপাতত বাড়িতে থেকেই কাজ করতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। স্কুল বন্ধ থাকাকালীন পড়ুয়াদের পঠন-পাঠনে যে সমস্যা হবে স্কুল খুললে শিক্ষকদের সেগুলি বুঝিয়ে দিতে আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

করোনার সংক্রমণ রুখতে তৎপর রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই সতর্কতামূলক একাধিক ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার। আগামী সোমবার ১৬ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সব সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগামী ৩০ মার্চ পর্যন্ত পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হবে। ৩০ মার্চের পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি চালু নিয়ে ফের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

শিক্ষকদের আপাতত বাড়িতে থেকেই কাজ করতে আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। স্কুল বন্ধ থাকাকালীন পড়ুয়াদের পঠনপাঠনজনিত সমস্যা হবে। স্কুল খুললে সেই সমস্যা দূর করতে শিক্ষকদের সচেষ্ট হতেও আবেদন জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর মতে, ‘করোনা ভাইরাস নিয়ে প্যানিক করার কারণ নেই। সতর্ক থাকতে হবে। ছোটদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়ানোর প্রবণতা বেশি।’

রাজারহাটে নবনির্মিত ক্যান্সার হাসপাতালে দুটি আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করা হচ্ছে। কোনওভাবে যদি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে তবে একসঙ্গে শতাধিক মানুষের চিকিৎসা করা যাবে ওই হাসপাতালে। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সেই হাসপাতালের পরিকাঠামো ঘুরে দেখে গিয়েছেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

রাজ্যবাসীকে সতর্ক থাকতে আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এব্যাপারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদন, ‘যত্রতত্র নোংরা-আবর্জনা ফেলবেন না। ভিড় বা যে কোনওরকম জমায়েত এড়িয়ে চলুন।’ দেশে রীতিমতো আতঙ্ক তৈরি করেছে করোনা ভাইরাস।

ইতিমধ্যেই দেশে ৮৩ জনের শরীরে মারণ এই ভাইরাসের হদিশ মিলেছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত বেড়ে দুই। দিল্লির জনকপুরীর বাসিন্দা এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবারও কর্ণাটকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা