স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাতেও চলবে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত। শুক্রবার সকাল থেকেই ছিল মেঘলা আকাশ। জায়গায় জায়গায় ভার বৃষ্টিও হয়েছে। এদিন রাতেও ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানাল হাওয়া অফিস।

এদিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাতের দিকে তাপমাত্রা একটু কম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সকাল থেকেই কলকাতার বিভিন্ন অংশে কোথাও কোথাও রোদের দেখা মিললেও মোটের উপর কলকাতা শহর জুড়ে বিরাজ করছে মেঘাচ্ছন্ন পরিস্থিতি।

গত জুলাইয়ের প্রথম দিকে রাজ্যে বর্ষা প্রবেশ করার কথা থাকলেও তেমনটা হয়নি। জুলাইয়ের প্রথম দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে প্রখর রোদে পুড়তে হয়েছে বঙ্গবাসীকে। কিন্তু গত ২২ তারিখ থেকে ছিটেফোঁটা বৃষ্টি নিয়েই রাজ্যে প্রবেশ করে বর্ষা। ২৩ অগাস্ট থেকে পুরোদমে বর্ষা উপভোগ করতে শুরু করেন দক্ষিণবঙ্গবাসী।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ থেকেই এই বৃষ্টি বলে জানিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। জুলাই ভর উত্তরের আলিপুরদুয়ারে যেখানে বৃষ্টির পরিমাণ ছিল ১,৫২৯.৮ মিলিমিটার। সেখানে দক্ষিণবঙ্গ পেয়েছে মাত্র ১৭৪.৯ মিলিমিটার। কলকাতা সেই জায়গায় পেয়েছে মাত্র ১৫৯.৯ মিলি মিটার।

শুক্রবার পশ্চিমের জেলাগুলি যেমন -পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বর্ধমানে প্রবল বৃষ্টি ধেয়ে আসে দুপুরের দিকে।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে ৩ অগাস্ট অর্থাৎ আগামীকাল থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়বে। রবিবার থেকে যার পরিমাণ আরও ঊর্ধ্বমুখী হবে বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। ৭ অগাস্ট পর্যন্ত এই নিম্নচাপ অক্ষরেখা স্থায়ী হওয়ায় বৃষ্টিও স্থায়ী হবে।