স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রবিবার সকাল থেকেই বৃষ্টিমুখর পরিবেশ শহর কলকাতা জুড়ে। কলকাতার বিভিন্ন অংশে বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সকাল ১০ টা পর্যন্ত কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি হয় বিক্ষিপ্তভাবে। রোদের দেখা মেলেনি। বেলা এগারটার দিকে ফের মেঘ জমতে শুরু করে আকাশে। মেঘমুক্ত আকাশ ছেয়ে ফেলে কালো মেঘ।

এদিন শহর কলকাতা জুড়ে দিনভর বৃষ্টির আমেজ বজায় থাকবে বলেই পূর্বাভাষ দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দিনভর থাকবে মেঘলা আকাশ। বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হবে। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ অব্যাহত থাকায় অস্বস্তি বাড়বে৷ উপকূলীয় জেলাগুলি সহ বৃষ্টি হবে বঙ্গ জুড়ে সর্বত্র। কলকাতায় এদিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

যদিও ২৭ তারিখের পর দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে বলেই জানিয়েছিল হাওয়া অফিস। কিন্তু ২৮ তারিখ অর্থাৎ রবিবার সকাল থেকেই বৃষ্টির আমেজ বজায় রয়েছে। হাওয়া অফিস জানিয়েছে ফের নিম্নচাপের সৃষ্টি হতে চলেছে। আগামী কয়েকদিনে তুমুল বৃষ্টিপাত হতে চলেছে। উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা নেই আজ। আগামী ৩১ জুলাই ফের নিম্নচাপ তৈরির আশঙ্কা জানিয়েছে হাওয়া অফিস৷ তাই রবিবার পর্যন্ত মত্‍স্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে৷

প্রায় কয়েক ঘন্টার বৃষ্টিতে রীতিমত জল জমে গিয়েছে বহু জায়গায়। রাজ্যে বর্ষা প্রবেশ করলেও তার প্রভাব বুঝতে পারেনি রাজ্যবাসী। গত মঙ্গলবার থেকে রাজ্যে বর্ষার মরশুমের স্বাদ পেয়েছে বঙ্গবাসী। হাঁসফাঁস গরম থেকে বঙ্গজীবনে স্বস্তি এনে দিয়েছে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্ত। এদিন সকাল থেকে দুয়েকবার সূর্যদেবের দেখা মিললেও মোটের উপর আকাশ ছিল মেঘাচ্ছন্ন। কোথাও কোথাও গুমোট ভাব বজায় ছিল। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তাপমাত্রাজনিত অস্বস্তি সহ্য করতে হয়নি শহরবাসীকে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও