কলকাতা: পিতৃ পক্ষের অবসান ঘটেছে শনিবার। পুজোর আর হাতে গোনা তিন দিন বাকি। তারপরেই শুরু হয়ে যাবে আপামর বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব ঘিরে উন্মাদনা। কিন্তু এত আনন্দের পরেও আকাশের মুখে হাসি ফোটাতে পারছে না শরৎ । শ্রাবনের অকাল বারি ধারা নেমেছে শহর জুড়ে।রবিবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টি৷

মাঝে কয়েকদিন নীল আকাশে পেঁজা তুলোর মত সাদা মেঘের ভেলা ভেসে বেড়াতে দেখে মুখে হাসি ফুটেছিল পুজো উদ্যোক্তা থেকে শুরু করে মৃৎ শিল্পী, ব্যবসায়ী ক্রেতা বিক্রেতাদের। কিন্তু সেই হাসি বেশিদিন স্থায়ী হবে না বলেই আগেই জানিয়েদিয়েছিল আবহাওয়া দফতর।

গত সপ্তাহে সোম ও মঙ্গলবার আকাশে সূর্যদেব দেখা দিলেও বুধবার থেকেই আকাশের অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে। যার সৌজন্যে রয়েছে বঙ্গোপ সাগরে সৃষ্টি হওয়া নিম্মচাপ। আর ওড়িশা উপকূলে তৈরি হওয়া এই নিম্মচাপের জেরে মহালয়ার পর থেকে কলকাতা যে ফের আবার বৃষ্টিতে ভিজবে সেই কথা অনেক আগেই শুনিয়ে রেখেছিল আলিপুর আবহাওয়া অফিস।

যার ফলে শেষ রবিবারেও পুজোর আমেজ নষ্ট করে দিতে চোখ রাঙাছে বর্ষাসুর। যারফলে আপাতত সোমবার পর্যন্ত বৃষ্টি চলবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আশ্বিনের ঘন নীল আকাশে সাদা মেঘের ভেলা উধাও। তাঁর জায়গা দখল করে নিয়েছে শ্রাবনের কালো মেঘ। ফলে গত কয়েকদিন ধরে কলকাতা শহর এবং শহরতলির বিভিন্ন প্রান্তে শ্রাবনের অকাল বারি ধারা নেমেই চলেছে। আপাতত এই অসুর বৃষ্টি কমার কোনও লক্ষন দেখছে না আবহাওয়া অফিস। যার জেরে পুজোর মুখে একদিকে যেমন সমস্যায় পড়েছে পুজো কমিটি গুলি অন্যদিকে লাগাতার বর্ষণে পুজোর বাজার মার খাওয়ায় লোকসানের মুখ দেখতে হচ্ছে বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের। এক কথায় পুজো শুরুর মুখে এই অকাল বর্ষা নিয়ে রীতিমত জেরবার রাজ্যবাসি। আসন্ন পুজোর দিন গুলিতে কি হবে তাই নিয়ে উদ্ববেগের প্রহর গুনছে শহরের ছোট-বড় পুজো উদ্যোক্তারা।

তবে সপ্তমী থেকে দশমী পর্যন্ত আকাশের অবস্থা কি চলবে তা ঠিক বলতে পারছেন না আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা। তবে পুজোর চারদিন বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনাকে একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না আবহাওয়া অফিস। আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার থেকে দ্বিতীয়া পর্যন্ত আকাশের অবস্থা খারাপ থাকবে। এই কয়দিন অতিভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

এদিকে, বঙ্গোপ সাগরে তৈরি হওয়া একটি নিম্মচাপের জেরে কলকাতা সহ দুই চব্বিশ পরগনা,হাওরা, হুগলী, নদীয়া, বর্ধমান,পূর্ব মেদিনীপুর এবং পশ্চিম মেদিনীপুর সহ আরও পাঁচ জেলায় অতিভারী বৃষ্টি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় রবিবার সকাল থেকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে একনাগাড়ে বৃষ্টি চলবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। সোমবার পর্যন্ত এই বৃষ্টি চলবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশ এবং ওই রাজ্য সংলগ্ন অঞ্চলে সক্রিয় হয়ে রয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত যার প্রভাব এই রাজ্যেও পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।