স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : এতদিন বৃষ্টিহীন ছিল দক্ষিণবঙ্গ কিন্তু এবার রীতিমত সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আগে হলুদ সতর্কতা ছিল। এখন তা কমলা করা হয়েছে।

অর্থাৎ ব্যাপক বৃষ্টি আসন্ন তা স্পষ্ট করছে হাওয়া অফিস। কোনও কোনও জেলায় বৃষ্টির তাণ্ডবও দেখা যেতে পারে দক্ষিণবঙ্গে। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপের উপরে। যা রবিবার একটি নিম্নচাপ প্রচণ্ড শক্তিশালী হয়ে বৃষ্টি দেবে দক্ষিণবঙ্গকে।

তবে তার আগে শনিবার পর্যন্ত এই বিশ্রী গরম চলবে। এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। এই গরমের পিছনেই লুকিয়ে স্বস্তির আভাস, কারণ সাগরে ঘনাচ্ছে নিম্নচাপ। ফলে শুকনো দক্ষিণবঙ্গে টানা তিন ভারী বৃষ্টি হতে পারে। অস্বস্তিকর গরম। সেই পরিস্থিতি থেকে মিলতে পারে স্বস্তি।

সৌজন্যে উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপ। এর ঘনীভূত হওয়ার সম্ভাবনা আগেই ছিল। সেদিকেই নজর ছিল আলিপুরের আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের। বৃষ্টির চিত্র স্পষ্ট হতেই পূর্বাভাস দিয়েছেন তাঁরা। শনিবার সকাল পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের আর কোথাও বৃষ্টি হয়নি। অথচ শুক্রবারে বেশ ভালো পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছিল। শনিবারে সব উধাও।

শনিবার সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গের আকাশের মুখ ভার থাকবে বেশ কয়েকটি এলাকায়। রয়েছে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা। প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস মিলতেই দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় জারি হয়েছে কমলা সতর্কতা। কলকাতা, বীরভূম, পুরুলিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া ও , ঝাড়গ্রামে প্রবল বৃষ্টি হতে পারে বলে খবর। এদিকে, মুর্শিদাবাদেও প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে খবর।

সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে ৭ জেলায়। বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম, বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বভাস রয়েছে।কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে।

মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর দক্ষিণবঙ্গের আট জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রাম এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানানো হয়েছে। বাকি জেলাগুলিতেও বিক্ষিপ্ত হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।