স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : ঝড় বিলীন হয়েছে। তাণ্ডব পর্ব শেষ হয়েছে বাংলাদেশেও। পশ্চিমবঙ্গ ঘুরে দাঁড়াবার চেষ্টা করছে। তবে বৃষ্টির পূর্বাভাস এখনও মিলছে। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তরবঙ্গের কিছু জেলায় বৃষ্টি হতে পারে।

আজ শুক্রবার সকাল পর্যন্ত কোচবিহারের ৫২.৫ মিলিমিটার, জলপাইগুড়িতে ৩৭.২ মিলিমিটার, দার্জিলিংয়ে ৮.৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। বাকি অন্যান্য জেলায় গড়ে ১.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। দক্ষিনবঙ্গ ও উত্তরবঙ্গের সমস্ত জেলগুলির সর্বনিম্ন গড় তাপমাত্রা ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে তিন দিন পর শহরে রোদের দেখা মেলে। কিন্তু তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়নি। কারণ অবশ্যই সাইক্লোন তান্ডব। শুক্রবার স্বাভাবিকের অনেক নীচে কলকাতার তাপমাত্রা।

শুক্রবার সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৯ ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯৮ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৯২ শতাংশ। অর্থাৎ ব্যাপক পতন হয়েছে সর্বোচ্চ তাপমাত্রায়। আজ দুপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি হতে পারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হতে পারে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃষ্টি হয়েছে ছিটেফোঁটা।

বৃহস্পতিবার সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম ছিল। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৬৯ শতাংশ।

বুধবার সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল মঙ্গলবার ৩৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম ছিল। আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৫ সর্বনিম্ন ৬৬ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছিল ১৩.৮ মিলিমিটার। সোমবার সন্ধ্যা থেকে হঠাৎ করেই হাওয়া বন্ধ হয়ে যায়। গুমোট হতে শুরু করে আবহাওয়া। রাতভর অস্বস্তিকর গরম ভুগিয়েছে শহরবাসীকে। সকালেও সেই অবস্থা বর্তমান ছিল। এ সবই যে ঝড়ের পূর্ববর্তী অবস্থা তা স্পষ্ট হয়ে যায়।

মঙ্গলবার, শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সোমবার ৩৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এই ডিগ্রি বেশি ছিল। বুধবার দিনভর শহরের উপর ঝড়ের তাণ্ডব চলে। শহরে সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ১৩৩ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা।

দমদমের সকালের তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বৃষ্টি হয়েছে ছিটেফোঁটা। সল্টলেকের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রি সেসিয়াস, বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমাণ দুই অঞ্চলেই আর্দ্রতা যথাক্রমে ৮৯ ও ৮৮ শতাংশ।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV