ফাইল চিত্র

স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: বিপদে পড়া ভিনদেশীদের পাশে দাঁড়িয়ে মানবিকতার নজির গড়ল রায়গঞ্জ থানার পুলিশ৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্থানীয় সূত্রে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ জানতে পারে, ৩  মহিলা ও ১ শিশু সহ ৭ জনের একটি ভিনদেশী দল রায়গঞ্জ শহরের সুদর্শনপুর এলাকায় উদ্দেশ্যবিহীন ভাবে ঘোরাফেরা করছেন৷ খবর পেয়ে পুলিশ ওই সাতজনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান৷ ভাষাগত সমস্যার কারণে তাঁরা ঠিক করে সমস্যার কথা বোঝাতে পারছিলেন না৷ পরে দলেরই এক সদস্যার ভাঙা ভাঙা হিন্দি শুনে পুলিশ জানতে পারে, মহারাষ্ট্রর এক ব্যক্তির সঙ্গে বাংলায় কাজের খোঁজে এসেছিলেন তাঁরা। কিন্ত তাঁদের দলের সর্দার তাদের ফেলে কোথাও একটা চলে গিয়েছে৷ সর্দারকে খুঁজতে গিয়ে আরও ৭জন বেপাত্তা হয়ে যান৷

বিপন্ন দলটির কাছে ছিল না প্রয়োজনীয় খাবার কিংবা টাকা পয়সাও৷ বিপদে পড়া মানুষগুলোকে খাবার খাওয়ানো হয় পুলিশের তরফে। শিশুটির জন্যও করা হয় দুধের ব্যবস্থা। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ ওই দলটিকে মহারাষ্ট্র পাঠাবার উদ্যোগ নিয়েছে। আইসি সুমন্ত বিশ্বাস জানিয়েছেন, ‘এটা পুলিশের কর্তব্য।’ বিপদের সময় পুলিশকে পাশে পাওয়ায় ভাঙা ভাঙা হিন্দুতে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের ভূয়সী প্রশংসা করেন ভিনদেশী দলটির সদস্যা মানিয়া৷