স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: অধিকারী গড়ে প্রচারে গিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা৷ তৃণমূলকে চোর, গুণ্ডাদের পার্টি বলে এদিন কটাক্ষ করেন তিনি৷

তমলুক থেকে এবার তৃণমূলের হয়ে লড়ছেন শিশির অধিকারীর মেজ ছেলে দিব্যেন্দু অধিকারী৷ ১৬-র পুননির্বাচনেও সাংসদ ছিলেন তিনি৷ তাই আবার তাঁর উপরই আস্থা রেখেছে দল৷ প্রতিপক্ষ বিজেপির সিদ্ধার্থ নস্কর৷ সিপিএমের ইব্রাহীম নস্কর ও কংগ্রেসের লক্ষ্মণ শেঠ৷

বিজেপি প্রার্থীর হয়ে প্রচারে এদিন রাহুল সিনহা বলেন, ‘‘যারা আসল তৃণমূল তারা আজ তৃণমূলের পিছনের বেঞ্চিতে, যারা সিপিএমের দুষ্কৃতীরা তারা আজ তৃণমূলের প্রথম সারিতে৷ এটাই তৃণমূলের নীতি।’’

প্রায় নিয়ম করে বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রচারে গিয়ে দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে রোড শো করছেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ এপ্রসঙ্গে খোঁচা মেরে রাহুল সিনহা বলেন, ‘‘আজকে মমতাদিকে রাস্তায় হাঁটতে হচ্ছে কারণ উনি নিজেই বুঝে গিয়েছেন তৃণমূলের বাজার খারাপ। তৃণমূল কেন্দ্রে কোনও নির্ণায়ক ভূমিকা নিতে পারে না৷ একমাত্র যা বিজেপি ছাড়া সম্ভব নয়৷ তাই ভোট নষ্ট না করে বিজেপিকে কেন্দ্রের স্থায়ী ও উন্নত সরকারের গঠনের জন্য ভোট দিন, মোদীজির হাত শক্ত করুন।’’

চিট ফান্ড কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা, মন্ত্রী, বিধায়ক, সাংসদ৷ আপাতত তাদের বেশ কয়েকজন জামিনে মুক্ত হলেও অভিযুক্তের তকমা হায়ে নিয়েই প্রার্থী হয়েছেন৷ বিজেপির প্রচারেও উঠে আসছে তা৷ এদিন রাহুল সিনহা বলেন, ‘‘তৃণমূল পার্টিটা এখন চোর আর গুণ্ডাদের পার্টি হয়েছে। তাই তো সারদা নারদার টাকা খাওয়া জেল খাটা মদন মিত্র ও সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি প্রার্থী করেছে।’’