নয়াদিল্লি: গুরুগম্ভীর ভাষণ নয়, তথ্যপূর্ণ বক্তব্য নয়। এবার ছড়া কেটে কেন্দ্রের মোদী সরকারকে আক্রমণ করলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। শুক্রবার ট্যুইট করে তিনি লিখেছেন বিশ লাখ কা আকড়া পার, গায়েব হ্যায় মোদী সরকার।

তিনি বলেন মোদী সরকারকে বারবার বলা সত্ত্বেও সতর্ক হয়নি তাঁরা। করোনা ভাইরাসের জের প্রবল ভাবে দেশের অর্থনীতিতে পড়বে বলে সতর্ক করা হয়েছিল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। তবু লাভ হয়নি।

১৭ই জুলাই প্রাক্তন কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী বলেছিলেন অগাষ্টের দ্বিতীয় সপ্তাহে ২০ লক্ষের ঘর ছাড়াবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তখনই দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছিল কেন্দ্রের মোদী সরকারকে।

এই কংগ্রেস নেতা জানান করোনা মোকাবিলায় একেবারেই ব্যর্থ কেন্দ্রের মোদী সরকার। দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হলে এত মানুষের মৃত্যু দেখতে হত না। মোদী সহ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা যে বারবার বলছেন, বিশ্বের অন্য দেশের তুলনায় ভালো অবস্থায় রয়েছে ভারত, কেন্দ্রের এই দাবিকেও প্রশ্নের মুখে ফেলেছেন রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন পরিসংখ্যান কেন্দ্রের এই দাবি সঙ্গে মিলছে না। কোন যুক্তিতে এই ধরণের অবাস্তব দাবি করছে বিজেপি।

এদিকে, আবারও একদিনের নিরিখে দেশে সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হলেন ৬২ হাজারেরও বেশি মানুষ। একইসঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার বলি ৮৮৬ জন।

করোনার লাগামছাড়া সংক্রমণে ত্রস্ত দেশ। রাজ্যে-রাজ্যে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় দিশেহারা একাধিক রাজ্যের প্রশাসন। সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখে ঘোরতর উদ্বিগ্ন কেন্দ্রীয় সরকার।

মাত্রাছাড়া সংক্রমণ গোটা দেশে। একদিনের নিরিখে আবারও সর্বোচ্চ সংক্রমণ গোটা দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হলেন ৬২ হাজার ৫৩৮ জন।

দেশে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ২০ লক্ষের গণ্ডি। শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২০ লক্ষ ২৭ হাজার ৭৫। করোনায় দেশে মোট মৃত্যু বেড়ে ৪১ হাজার ৫৮৫।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এই মুহূর্তে ৬ লক্ষ ৭ হাজার ৩৮৪টি অ্যাক্টিভ করোনা কেস রয়েছে গোটা দেশে। অধিকাংশ আক্রান্তই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

এখনও পর্যন্ত করোনামুক্ত হয়েছেন ১৩ লক্ষ ৭৮ হাজার ১০৬ জন। অর্থাৎ একদিকে আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যাও। অনেক ক্ষেত্রেই মৃদু উপসর্গ থাকা আক্রান্তদের বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা চলছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও