নিউজ ডেস্ক : ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে রাহুল গান্ধীকে জিতিয়ে দিয়েছেন ওয়ানাড়ের মানুষ। তাই ওয়ানাড় জিতে তড়িঘড়ি সেখানকার মানুষকে ধন্যবাদ জানালেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

২০১৯ সালে মোট ২ টি লোকসভা আসন থেকে লড়েছেন রাহুল। উত্তরপ্রদেশের অমেঠি এবং কর্ণাটকের ওয়ানাড়। অমেঠি কেন্দ্রে রাহুল কে হারিয়ে বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতায় জিতেছেন স্মৃতি ইরানি। কিন্তু কর্ণাটকের ওয়ানাড় আসনে জয় লাভ করেছেন রাহুল। তাই ওয়ানাড়বাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে নিজের কাজ শুরু করতে চান তিনি। শুক্রবার তাই জেতা কেন্দ্র ওয়ানাড়ের মানুষকে ধন্যবাদ জানান কংগেস সভাপতি। ওয়ানাড় থেকে ৭,০৫,০৩৪ টি আসনে জয় পেয়েছেন তিনি।

এদিন মালায়লম ভাষায় নিজের টুইটার হ্যন্দেলে একটি টুইট করে ওয়ানাড়বাসীকে ধন্যবাদ জানান তিনি। রাহুল টুইটে লেখেন, “আমি দেশের মানুষের সিদ্ধান্তে সম্মানিত। আমি সমস্ত জয়ী প্রার্থীদের অভিনন্দন জানাই। আমি ওয়ানাড়ের মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা তাদের প্রতিনিধি হিসেবে আমায় নির্বাচন করেছেন। আমি আমার কৃতজ্ঞতা বর্ধিত করে সম্মান ধন্যবাদ জানাতে চাই প্রত্যেকটি কংগ্রেস কর্মীকে নির্বাচনে কঠোর পরিশ্রম ও চেষ্টার জন্য।”

ওয়ানাড়ে রাহুলের প্রতিদ্বন্দী ছিলেন লেফট ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (এলডিএফ) পি পি সুনীর। তাঁকে ৪,৩১,০৬৩ ভোটে হারিয়ে দিয়েছেন রাহুল।

অন্যদিকে অমেঠিতে হেরে বিরোধীদের বিতর্ক-যজ্ঞে ঘি ঢেলেছেন রাহুল। অমেঠি তাঁদের পরিবারের পুরনো কেল্লা হলেও ওই কেন্দ্রে রাহুলের কর্মযজ্ঞে এবার খামতি ছিল বলে মতামত প্রকাশ করেছিলেন রাজনৈতিক মহলের অনেকেই। অনেকাংশেই বিষয়টি নিয়ে বলতে শোনা গিয়েছিল, অমেঠিতে হারার আশঙ্কা থেকেই ওয়ানাড়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে নেমেছিলেন রাজীব পুত্র।