নয়াদিল্লি: ভারত-চিন সীমান্তে কী হচ্ছে তা দেশবাসীকে জানানো উচিত কেন্দ্রীয় সরকারের। সীমান্তের এই সমস্যা কোনওমতেই কেন্দ্রের চেপে যাওয়া উচিত নয় বলে মনে করেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। ভারত-চিন সীমান্তের বিবাদ প্রসঙ্গে মোদী সরকারের নিশ্চুপ থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাহুল গান্ধী।

লাদাখে ‘লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল’-নিয়ে চিন-ভারত বিবাদ ক্রমেই বাড়ছে। তবে এই বিবাদ নিয়ে দেশবাসীর কাছে খোলসা করে কিছুই জানায়নি কেন্দ্রীয় সরকার।

এবার সংবেদনশীল এই ইস্যু নিয়ে মুখ খুললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। টুইটে মোদী সরকারের উদ্দ্যেশ্যে রাহুল গান্ধীর প্রশ্ন, ‘ভারত-চিন সীমান্তের পরিস্থিতি নিয়ে সরকার নীরব। এই নীরবতা বড় কোনও বিপদের ইঙ্গিত দিচ্ছে না তো?’

ভারত-চিন সীমান্তের এই সমস্যা দেশবাসীকে জানানো উচিত বলে মনে করেন রাহুল গান্ধী। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সীমান্তের পরিস্থিতি ঠিক কী তা কেন্দ্রীয় সরকার দেশবাসীকে পরিষ্কার করে বলুক। লাদাখ নিয়ে কী ভাবছে কেন্দ্র? বিশদে তা জানিয়ে স্বচ্ছতা বজায় রাখা উচিত মোদী সরকারের।’

এদিকে, ভারত-চিন সীমান্ত সংঘাতে মধ্যস্থতা করতে চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দু’পক্ষ চাইলে তিনি সমস্যা মেটাতে উদ্যোগ নিতে তৈরি বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প। যদিও মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবে সায় নেই চিনের। ভারতের সঙ্গে সীমান্তের সমস্যা মেটাতে কারও হস্তক্ষেপ প্রয়োজন নেই বলে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে জবাব দিয়েছে বেজিং।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প