নয়াদিল্লি– পেশ হল ২০২০-র বাজেট। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বাজেট ঘোষণা করলেন। বাজেট পেশ শুরু হওয়া থেকেই বিরোধী দলগুলি সমালোচনায় সরব হয়েছিল। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ২০২০ বাজেটের তীব্র সমালোচনা করলেন।

টানা ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট ঘরে বাজেট ঘোষণা করেছেন নির্মলা। সবচেয়ে দীর্ঘতম কিন্তু অকার্যকর বাজেট হিসেবে কটাক্ষ করেছেন রাহুল। এছাড়াও দেশ জুড়ে বাড়তে থাকা বেকারত্বের প্রসঙ্গ টেনে এনেও এদিন বিজেপিকে নিশানা করেন কংগ্রেস নেতা।

রাহুল গান্ধী বলছেন, মূল সমস্যা হল বেকারত্ব। আমি কোনও ভাল পদক্ষেপ দেখছি না যার দ্বারা দেশের নতুন প্রজন্মের কর্মসংস্থান হতে পারে। আমি তেমন কিছুই দেখতে পেলাম না। এর থেকেই সরকারের অবস্থান স্পষ্ট। তারা শুধুই মুখেই অনেক কিছু বলে। কাজে কিছুই করে না।

কংগ্রেস নেতা আরও বলেন, ইতিহাসে বোধহয় এটাই সবচেয়ে দীর্ঘতম বাজেট পেশ। কিন্তু এর মধ্যে কিছুই ছিল না। পুরোটাই ফাঁপা।

আর এক কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মাও বাজেট ২০২০-এর সমালোচনা করেছেন। তিনি বলছেন, বাজেট সংক্রান্ত অঙ্ক বুঝিয়ে বলতে পারেননি নির্মলা সীতারমন।

প্রসঙ্গত, শনিবার দ্বিতীয় মোদী সরকারের দ্বিতীয় বাজেট পেশ করতে গিয়ে শুরুতেই প্রয়াত অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকে শ্রদ্ধা জানান নির্মলা সীতারমন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।