মুম্বই : মহারাষ্ট্রে আর কয়েকদিনের মধ্যেই বিধানসভা ভোট। আর সেই ইস্যুতে পুরোদমে চলছে রাজনৈতিক প্রচার। সে রাজ্যের জাভাতমাল জেলায় এক নির্বাচনী সভা থেকে রাহুল বলেন, মোদী সরকারের ভুল অর্থনীতির জন্যই বেকারত্ব বেড়েছে। তিনি বলেন, নোটবন্দি এবং জিএসটি-র মতো ভুল পদক্ষেপের ফলাফলই হল বেকারত্ব।

ভোট প্রচারের র‍্যালি থেকে গান্ধী বলেন, যতদিন মোদী সরকার ক্ষমতায় থাকবে, বেকারত্বের সমস্যার সমাধান হবে না।” তিনি বলেন, গরীব মানুষরাই মোদী সরকারের নোটবন্দি এবং জিএসটি (গুডস অ্যান্ডস সার্ভিস ট্যাক্স)-তে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। রাহুল বলেন, অর্থনীতি আম্বানি এবং আদানি চালায় না, চলে দরিদ্র লোকেদের দ্বারা। ”

রাহুল সভা থেকে দাবি করেন, পরের ছয় মাসে বেকার যুবকদের সংখ্যা দ্বিগুণ হবে। তিনি জানান, মহারাষ্ট্রের কাছে এই ব্যাপারটি সংশোধনের একটি সুযোগ রয়েছে। তিনি মহারাষ্ট্রের মানুষের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, এই সংকট মোচনের জন্য কংগ্রেস-এনসিপি-র জোট সরকারকে নির্বাচন করুন।

আরও পড়ুনমহারাষ্ট্রে ভোটের আগে পিএমসি ব্যাংক কেলেঙ্কারি ইস্যু

তিনি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলেন, মহারাষ্ট্র ভোটের পরে এক নতুন সরকার পাবে। যে সরকার গরীব, কৃষক এবং ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের জন্য কাজ করবে। রাহুল বলেন, কংগ্রেস-এনসিপি জোট সরকার সমস্ত ভুল ত্রুটি সংশোধনের কাজ করবে।

গান্ধী দাবি করেন, সম্প্রতি তিনি যখন গুজরাট যান, তখন কিছু ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা তাঁকে জানিয়েছেন, নোটবন্দি এবং জিএসটি তাঁদের মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে এবং তাঁদের ব্যবসা পুরোপুরি ধুয়ে মুছে গেছে। তিনি বলেন, “জিএসটি দেওয়ার পর এই ব্যবসায়ীদের আবার আয়কর কর্তাদের ঘুষ দিতে হয়।” তিনি দাবি করেন, সারা দেশের নানান জায়গাতেও এই একই অবস্থা চলছে ।