গান্ধীনগর: গুজরাতে প্রচারে গিয়ে অনেক ঝড় তুলেছেন কংগ্রেস যুবরাজ রাহুল গান্ধী৷ প্রধানমন্ত্রী ও অমিত শাহকে তীব্র আক্রমণ করে হাততালি কুড়িয়েছেন তিনি৷ কিন্তু সফর শেষে একটা ঘটনার জেরে নিজেই হয়ে উঠলেন পরিহাসের পাত্র৷ তাই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখরোচক আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছেন কংগ্রেস যুবরাজ৷

বুধবার গুজরাতের ছোটা উদয়পুরে প্রচারে যান রাহুল গান্ধী৷ সমাবেশ শেষে শৌচালয়ে যাওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেন তিনি৷ শৌচালয়ে যানও তিনি৷ কিন্তু ভুলবশত মহিলা শৌচালয়ে ঢুকে পড়েন তিনি৷ সেখান থেকে বেড়িয়ে আসতেই হাসির রোল ওঠে চারিদিকে৷ দৃশ্যতই অস্বস্তিতে পড়ে যান যুবরাজ৷

অবশ্য এতে রাহুলের কোন দোষ ছিল না৷ ভুলবশতই তিনি মহিলা শৌচালয়ে ঢুকে পড়েন৷ শৌচালয়ের বাইরে কোন পুরুষ বা মহিলা চিহ্ন ছিল না৷ শুধু এক জায়গায় গুজরাতি অক্ষরে লেখা ছিল ‘মহিলাও মাটে শৌচালয়’৷ লেখাটি লক্ষ্য না করেই ঢুকে পড়েন তিনি৷ যুবরাজের ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী ব্যপারটি বুঝতে পারেন৷ কিন্তু একটু বোধদয় হয় তার৷ কয়েক সেকেন্ড পরই শৌচালয় থেকে বেরিয়ে আসেন রাহুল৷ সমাবেশের বাইরে থাকা চিত্র গ্রাহকরা গোটা ঘটনাটির ভিডিও করে নেন৷ সেই ক্লিপিংই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে৷