বেঙ্গালুরু: ব্যাটে রানের অব্যাহত ফুলঝুরি রাহুল দ্রাবিড় পুত্রের৷ গত দু’মাসে দু-দু’টি ডাবল সেঞ্চুরির পর ফের বড় রান পেলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের ছেলে৷ সমিতের অল-রাউন্ড পারফরম্যান্সের ভর করে অনূর্ধ্ব-১৪ বিটিআর শিল্ডের সেমিফাইনালে পৌঁছল অদিতি ইন্টারন্যাশানাল স্কুল৷

কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানের পুত্র ছাড়াও সমিত এখন ভারতীয় ক্রিকেটে পরিচিত মুখ৷ মাত্র ১৪ বছরেই ব্যাট হাতে যেভাবে দাপট দেখাতে শুরু করেছে, তাতে অল্প দিনেই আর নাম করে ফেলবে জুনিয়র দ্রাবিড়৷ মাস দু’য়েকের ব্যবধানে দু’টি ডাবল সেঞ্চুরির পর মঙ্গলবার ফের বড় রান করেন সমিত৷ ১৩১ বলে ২৪টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১৬৬ রানের ইনিংস খেলে দলকে টুর্নামেন্টের শেষ চারে তোলে দ্রাবিড় পুত্র৷

বাবার মতো শুধু ব্যাটে হাতে কামাল দেখানো নয়, বল হাতেও ভেলকি দেখাচ্ছে এই খুদে ক্রিকেটার৷ ব্যাটে দুরন্ত সেঞ্চুরির পাশাপাশি মাত্র ৩৫ রান খরচ করে প্রতিপক্ষের চারটি উইকেট তুলে নেয় সমিত৷ জুনিয়র দ্রাবিড়ের ব্যাটে ভর করে ৫০ ওভারের ম্যাচে পাঁচ উইকেটে ৩৩০ রান তোলে অদিতি ইন্টারন্যাশানাল৷ রান তাড়া করতে নেমে ১৮২ রানে অল-আউট হয়ে যায় বিদ্যাশিপ অ্যাকাডেমি৷ সমিতের চার উইকেট ছাড়াও তিনটি উইকেট নিয়েছে দায়ান৷

চলতি মাসের শুরুতে দ্বিতীয় ডিভিশনের গ্রুপ ওয়ান ম্যাচে সাই কুমারানের বিরুদ্ধে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিল দ্রাবিড়-পুত্র। মাত্র ১৪৬ বলে ৩৩টি বাউন্ডারি মেরে এই কৃতিত্ব অর্জন করে সমিত। শেষ পর্যন্ত ২০৪ রান করে সে৷ সমিতের ব্যাটে ভর করেই ৫০ ওভারে তিন উইকেটে ৩৭৭ রান তুলেছিল অদিতি ইন্টারন্যাশানাল স্কুল৷

কলকাতায় ইন্টার জোনাল টুর্নামেন্টে ভাইস প্রেসিডেন্ট একাদশের জার্সিতে ধারওয়াদ জোনের বিরুদ্ধে দ্বিশতরান করেছিল জুনিয়র দ্রাবিড়। সেবার ২৫৬ বলে ২২টি বাউন্ডারির সাহায্যে ২০১ করেছিল সমিত৷ সেই ম্যাচে তিনটি উইকেটও নিয়েছিল দ্রাবিড়-পুত্র৷

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প