বেঙ্গালুরু: একেই বলে বাপ কা বেটা! ব্যাটে বাবার প্রতিছবি৷ কিংবদন্তি রাহুল দ্রাবিড়ের পুত্র হলেও সমিত এখন ভারতীয় ক্রিকেটে পরিচিত মুখ৷ মাত্র ১৪ বছরেই ব্যাট হাতে যেভাবে দাপট দেখাতে শুরু করেছে, তাতে অল্প দিনেই আর নাম করে ফেলবে জুনিয়র দ্রাবিড়৷

মাত্র দু’মাসের মধ্যে দু’টি ডবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ফেলল সমিত দ্রাবিড়৷ অনূর্ধ্ব-১৪ টুর্নামেন্টে মালিয়া অদিতি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের হয়ে বিটিআর শিল্ডে প্রতিনিধিত্ব করে সমিত৷ শনিবার দ্বিতীয় ডিভিশনের গ্রুপ ওয়ান ম্যাচে সাই কুমারানের বিরুদ্ধে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকায় দ্রাবিড় পুত্র। মাত্র ১৪৬ বলে ৩৩টি বাউন্ডারি মেরে এই কৃতিত্ব অর্জন করে সমিত।

শেষ পর্যন্ত ২০৪ রান করে সমিত৷ তার ব্যাটে ভর করেই ৫০ ওভারে তিন উইকেটে ৩৭৭ রান তোলে অদিতি ইন্টারন্যাশানাল স্কুল৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রতিপক্ষ দল সাই কুমারন চিলড্রেন্স অ্যাকাডেমি ১১০ রানে অল-আউট হয়ে যায়। ২৬৭ রানে জয় তুলে নেয় সমিতের অদিতি ইন্টারন্যাশানাল স্কুল৷

গত দু’মাসে এটি দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি সুমিতের। গত ডিসেম্বরেই অনুর্ধ্ব-১৪ পর্যায়ের ক্রিকেটে রাজ্যস্তরে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিল সমিত। কলকাতায় ইন্টার জোনাল টুর্নামেন্টে ভাইস প্রেসিডেন্ট একাদশের জার্সিতে ধারওয়াদ জোনের বিরুদ্ধে দ্বিশতরান করেছিল জুনিয়র দ্রাবিড়। সেবার ২৫৬ বলে ২২টি বাউন্ডারির সাহায্যে ২০১ করেছিল সমিত৷ ডাবল সেঞ্চুরির পাশাপাশি সেই ম্যাচেও ৩টি উইকেটও নিয়েছিল রাহুল পুত্র। শুধু তাই নয়, প্রথম ইনিংসেও ৯৪ রানের ঝকঝকে ইনিংস এসেছিল সমিতের ব্যাট থেকে৷

কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানের যোগ পুত্র হওয়ার পথেই এগোচ্ছে সুমিত৷ বাবা প্রতিপক্ষ বোলারদের সামনে ‘দ্য ওয়াল’ হয়ে উঠতেন৷ আর পুত্র ঘরোয়া ক্রিকেটে একের পর এক ডাবল সেঞ্চুরি করে সেপথেই এগোচ্ছে। বাবা নির্ভরযোগ্য ব্যাটিংয়ের জন্য হয়ে উঠেছিলেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’৷ আর পুত্র এখন থেকেই হয়ে উঠছে দলের পরিত্রাতা৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা