কলকাতা: রাজনীতিতে চিরস্থায়ী শত্রু থাকে না৷ এই প্রবাদকে আগেই সত্যি করে  দেখিয়েছেন বিহারের নীতীশ কুমার ও লালুপ্রসাদ যাদব৷ গত বছরের শেষের দিকে বিহার ভোটে যুযুধান দুই শিবির নীতিশ-লালুর জোট গোট দেশকে তাক লাগিয়েছিল৷ এই মহাজোট সাফল্য পেয়েছিল৷ নবান্ন দখলের লড়াইয়ের সন্ধিক্ষণে  কার্যত বিহারের ‘মহাজোট’ মডেলকেই এবার হাতিয়ার করছে  বাম-কংগ্রেস শিবির৷

পঞ্চম দফার ভোটের প্রস্তুতি পর্বে তৃণমূল কংগ্রেসকে শেষ কামড় দিতে মরিয়া বাম-কংগ্রেস জোট৷ তার আগেই রাজ্যের জন্য থাকছে জোটের রাজনৈতিক চমক৷  কংগ্রেস সহ সভাপতি রাহুল গান্ধী ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য একই মঞ্চ থেকে প্রচার করবেন৷  রাজ্যের রাজনৈতিক ইতিহাসে এ এক বিরল ঘটনা হতে চলেছে৷

যদিও মঞ্চ ভাগাভাগি নিয়ে চরম আপত্তি জানিয়েছিল সিপিএম রাজ্য কমিটি৷  আলিমুদ্দিনের সেই আপত্তিকে  পাত্তা না দিয়েই জোটের প্রচারে একই মঞ্চে দেখা যেতে চলছে সিপিএম ও কংগ্রেসের অন্যতম শীর্ষ দুই মুখকে৷ ভিন্ন মেরুর দুই রাজনৈতিক মতাদর্শের বিশ্বাসী রাহুল গান্ধী ও বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে একই মঞ্চে দেখতে পাওয়া বাংলার রাজনীতিতে নজিরবিহীন বটে৷

আগামী ২৭ এপ্রিল (বুধবার)পঞ্চম দফা ভোটের আগে পার্কসার্কাস ময়দানে সভা করার কথা রয়েছে রাহুল গান্ধীর। সেই সভাতেই রাহুলের পাশে বসবেন বুদ্ধবাবু৷  জানা গিয়েছে, এই সভায় সভাপতি হিসেবে থাকতে পারেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৷ কংগেসের সহ সভাপতি রাহুল গান্ধীর ভাষণের  পর বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ভাষণ দিতে পারেন বলে খবর৷  এর আগে রাজ্যের ভোট প্রচারে তিনবার এসেছেন সোনিয়া পুত্র রাহুল৷ মঞ্চে দাঁড়িয়ে জোটের সরকার ক্ষমতায় আসছে বলেও বারবার মন্তব্যও করেছেন তিনি৷ অন্যদিকে কেরলের নির্বাচনে কংগ্রেসের জনসভা থেকে বিরোধী বামেদের নাম নিয়ে আক্রমণ করেছেন রাহুল গান্ধী৷ আর বাংলায় এসে ‘বাম-নাম করতে শোনা গিয়েছে সোনিয়া পুত্রের গলায়৷ জোট রাজনীতির ঠেলায় এবার বুদ্ধবাবুর উপস্থিতিতে কংগ্রেস সহ সভাপতি কী বার্তা দেন তাও লক্ষনীয়৷   দীর্ঘ দিন ধরে অসুস্থ থাকার জেরে বামেদের প্রচারে সেভাবে দেখা যায়নি, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে৷ পরে তাঁকে নিয়ে রোড শো করেছে সিপিএম৷ কংগ্রেস কর্মীদেরও দেখা গিয়েছিল সেই মিছিলে৷ যদিও, এবারের নির্বাচনে অসুস্থ বুদ্ধ ‘তাস’ বেশি ব্যবহার করেনি বামেরা৷  তবে, সেই ‘বুদ্ধ তাস’কেই এবার ট্রামকার্ডে পরিণত করতে চলেছেন রাজ্য বাম নেতৃত্ব৷ বুধবার রাহুল-বুদ্ধের জুটির পাশাপাশি, মঙ্গলবার হুগলির শ্রীরামপুরে সোনিয়া গান্ধীর প্রচার মঞ্চ আলো করে বসবেন সিপিএম নেতা রবীন দেব৷ শ্রীরামপুরের জনসভায় বক্তব্যও রাখবেন রবীনবাবু৷ ভোটের শেষলগ্নে পৌঁছে জোটের মঞ্চে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে সিপিএমের উপর তলার ‘ঘনিষ্ঠতা’ নিয়ে কালবৈশাখীর ঝড় আছড়ে পড়তে শুরু করেছে গাঙ্গেয় রাজনীতির ময়দানে৷  সেই কালবৈশাখী জোটের ভাগ্যে  স্বস্তি আনবে কি ?  উত্তর মিলবে ১৯ মে, বৃহস্পতিবার৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।