নিউ ইয়র্ক: জকোভিচ-ফেডেরার বিদায় নিয়েছেন আগেই। তরুণ মুখের ভিড়ে ফ্লাশিং মেডোয় পুরনো বলতে একমাত্র রাফায়েল নাদাল। নামের প্রতি সুবিচার করে যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনালে পৌঁছে গেলেন স্প্যানিশ মায়েস্ত্রো। ইতালির মাতেও বেরেত্তিনিকে সহজেই স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দিয়ে চলতি বছর দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যামের এক ধাপ দূরে রাফা। কেরিয়ারের ১৯ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্যে রবিবার রাশিয়ার ড্যানিল মেদভেদেভের মুখোমুখি স্প্যানিশ তারকা।

অর্থাৎ, যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে ড্যানিল মেদভেদেভের কাছে রজার্স কাপ ফাইনালে হারের মধুর বদলা নেওয়ার সুযোগ। তার আগে শনিবার পঞ্চমবার ফ্লাশিং মেডোর ফাইনালে ওঠার পথে ৭-৬, ৬-৪, ৬-১ ব্যবধানে জয় ছিনিয়ে নিলেন তিনবারের যুক্তরাষ্ট্র ওপেন বিজয়ী। যদিও নাদালের বিপক্ষে প্রথম সেটে তুল্যমূল্য লড়াই ছুঁড়ে দেন বছর তেইশের বেরেত্তিনি। প্রথম সেটে টাইব্রেকারে ৭-৬ (৮-৬) কষ্টার্জিত জয় পান নাদাল। এরপর দ্বিতীয় সেটের শুরুতেও প্রায় সমান সমান লড়াই চালান ইতালির উদীয়মান তারকা। তবে শেষ অবধি ব্রেক পয়েন্ট ছিনিয়ে নিয়ে ৫-৩ ব্যবধানে লিড নেন নাদাল।

এরপর বাকি সময়টা আধিপত্য বিস্তার করে ম্যাচ সহজেই নিজের নামে করে নেন তিনবারের যুক্তরাষ্ট্র ওপেন জয়ী। দ্বিতীয় সেট ৬-৪ ব্যবধানে জিতে নেওয়ার পর তৃতীয় সেটে নাদাল ঝড়ের সামনে কার্যত খড়কুটোর মতো উড়ে যান বিশ্বের ২৫ নম্বর। ৬-১ ব্যবধানে তৃতীয় সেটে একতরফা জয় ছিনিয়ে নেন নাদাল। একইসঙ্গে ২৭ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে নিজের নাম নথিভুক্ত করেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি।

ম্যাচ শেষে স্প্যানিশ তারকা জানান, ‘যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনালে ফের জায়গা করে নিতে পেরে দারুণ লাগছে।’ এপ্রসঙ্গে তাঁর আরও সংযোজন, ‘বছরের শুরুতে যে অবস্থায় ছিলাম সেখান থেকে আজ এই জায়গায় নিজেকে দেখে ভাললাগছে।’ উল্লেখ্য, রবিবার মেদভেদেভের বিরুদ্ধে ১৯ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্যে কোর্টে নামবেন রাফা। আর শেষ অবধি যুক্তরাষ্ট্র ছিনিয়ে নিতে পারলে রজার ফেডেরারের সঙ্গে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের ব্যবধান কমে দাঁড়াবে মাত্র ১-এ।