নয়াদিল্লি: পাকিস্তানে ‘রইস’-র প্রদর্শন নিয়ে বিতর্ক চরমে৷ মুসলিমদের যথাযথভাবে প্রদর্শিত করা হয়নি এই অভিযোগে রইসের প্রদর্শন বন্ধ করা হয় পাকিস্তানে৷ এমনই সময় ছবির নায়িকার চরিত্রে থাকা পাকিস্তানি অভিনেত্রী সম্পর্কে উঠে এল কিছু না জানা তথ্য৷

আপাতত পাকিস্তানের ললিউডের সিঙ্গেল মাদার মাহিরা খান৷ ২০০৭ এ আলি আসকারির সঙ্গে গাঁটছড়া বেধেছিলেন এই নায়িকা৷ তারপর কেটে গিয়েছে বেশ কিছু বছর৷ ২০১৫সালে বিচ্ছেদও ঘটে এদের মধ্যে৷ তাই তাদের একমাত্র ছেলে আজলানের সব দায়িত্ব এখন তাঁরই৷ ছেলের জন্য অভিনয় জীবনের সঙ্গেও আপোস করে চলেছেন মাহিরা৷ তিনি জানান, তাঁর প্রথম কাজ এখন তাঁর ছেলেকে মানুষ করা৷

উড়ি আক্রমনের পর থেকে ভারত-পাকিস্তান উষ্ণ সম্পর্কের প্রভাব পরে সিনেজগতেও৷ বিভিন্ন কারনে নিষিদ্ধ হয় এই ছবি পাকিস্তানে৷ সেই বিষয় নিয়েও মাহিরা জানান, পাকিস্তানবাসীরা ছবি মুক্তির আশায় দিন গুনছেন৷ তারা রইস ছবিটি নিয়ে খুবই উৎসাহিত৷