ফাইল ছবি

ব্যাঙ্গালুরু:  বিউটি পার্লারের আড়ালে মধুচক্র! অবশেষে ফাঁস সেই চক্র। ইতিমধ্যে ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃত দুজন মধুচক্রের দুই পান্ডা বলে অনুমান।

সাইবার সিটিতে রমরমিয়ে চলছিল সেক্স ব়্যাকেটের কারবার৷ বিউটি পার্লারের ধৃত মালিক ও তার সাগরেদ এই কারবারে যুক্ত ছিল৷ জেনি এবং সিরাজুদ্দিন দুই ব্যক্তিও এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ছিল বলে দুজনের নাম পেয়েছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র মধুচক্রই নয়, এর পাশাপাশি চলত মানব পাচারকারীর কাজও৷ এই সমস্ত অপরাধীরা কাজ দেওয়ার লোভ দেখিয়ে এখানে নিয়ে আসা হত যুবতীদের৷ এরপর তাদেরকে বাধ্য করা হত দেহ ব্যবসায় নামতে৷

জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ রাতে তল্লাশি অভিযান চালায় সেখানে। এরপরই সেক্স ব়্যাকেটের জাল থেকে নয়জন যুবতীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ এই সমস্ত যুবতীদের মধ্যে তিনজন ছিল নাগাল্যান্ড ও থাইল্যান্ডের ছিল বলে জানা গিয়েছে।

পাশাপাশি উদ্ধার হওয়া তরুণীদের একজন ছিল অসমের এবং বেঙ্গালুরু শহরের ছিল একজন৷ সদাশিবনগর পুলিশ স্টেশন এবং পরপান্না আগ্রাহর পুলিশ স্টেশন থেকে অভিযান চালিয়ে শিবাই থাই স্পা এবং লোটাস ক্লাসিক স্পা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে চারজনকে৷ এছাড়াও উদ্ধার হয়েছে নগদ প্রায় ২লক্ষ টাকা এবং ১৪টি মোবাইল ফোন৷

1 COMMENT

Comments are closed.