পাটনা: লালু যাদবের স্ত্রী রাবড়ি দেবীকে আক্রমণ করতে গিয়ে মহিলাদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী চৌবের বিরুদ্ধে৷ বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে ঘোমটা দিয়ে মুখ ঢেকে রাখার ‘পরামর্শ’ দেন বিজেপি নেতা৷ এই নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক৷ বিরোধীরা যথারীতি বিজেপিকে এই নিয়ে তোপ দেগেছে৷ তারা জানিয়েছেন, বিজেপি তাদের সংকল্প পত্রে মহিলাদের ক্ষমতায়নে জোর দেওয়ার কথা বলেছে৷ অথচ তাদেরই নেতা মহিলাদের পর্দার আড়ালে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলছে৷ বিজেপি অবশ্য কোনও মন্তব্য করতে চায়নি৷

রাবড়ি দেবী কিছুদিন আগে বলেছিলেন, এনডিএ’র মধ্যে ফাটল ধরেছে৷ নীতীশ কুমার আর গেরুয়া শিবিরে থাকতে চাইছেন না৷ সেই জন্য দলের নেতা প্রশান্ত কিশোর রাবড়ি দেবীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন৷ অন্তত পাঁচবার তিনি রাবড়ি দেবীর বাড়ি যান৷ প্রশান্ত তাঁকে জানান, নীতীশ আবার মহাজোটে ফিরতে চাইছেন৷ কিন্তু জেডি(ইউ) নেতার ট্র্যাক রেকর্ড দেখে তাঁর উপর আর ভরসা করতে রাজি নয় কেউ৷ তাই প্রশান্ত কিশোরকে ফিরিয়ে দেন৷ সেই কথা উল্লেখ করেই রাবড়ি দেবী জানান, দুই দলের মধ্যে সম্পর্ক আর আগের জায়গায় নেই৷

এই নিয়ে শনিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি রাবড়ি দেবীর অভিযোগ উড়িয়ে দেন৷ দাবি করেন, এনডিএ তে কোনও সমস্যা নেই৷ তারপরেই রাবড়ি দেবীকে আক্রমণ করতে গিয়ে বলেন, ‘‘তিনি আমার বউদি৷ তিনি তাঁর মুখ ঘোমটায় ঢেকে রাখলেই ভালো৷’’ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মন্তব্যের পাল্টা জবাব দেন রাবড়ি দেবীও৷ জানান, মহিলারা যদি ঘোমটা থেকে বেরিয়ে আসতে চায় তাহলে সমস্যা কিসে? ভিডিও বার্তা ও পরে ভোজপুরি ভাষায় ট্যুইটে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, মহিলাদের এত ভয় কিসের আপনার? আপনি কি তাদের ঘোমটার নিচে থাকাতে বিশ্বাস করেন?