কোচবিহার: বছরের শুরু সবথেকে বড় রাজনৈতিক সমাবেশের কাউন্টডাউন শুরু। আসছেন দেশের তাবড় নেতারা। একে একে কলকাতার দিকে আসতে শুরু করেছেন জেলার তৃণমূল নেতৃত্ব। রওনা হওয়ার আগে কোচবিহারে তৃণমুলের শক্তির কথা মনে করিয়ে দিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

বৃহস্পতিবার নিউ কোচবিহার স্টেশন থেকে জেলার তৃণমূলকর্মীদের রওনা হওয়া সময় উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী। কর্মীদের হাতে জল এবং শুকনো খাবার তুলে দেন তিনি। সকালে তিস্তা তোর্সা এক্সপ্রেস এবং পরের দিকে উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেস ও পদাতিক এক্সপ্রেসে কর্মীরা রওনা হন। মন্ত্রী নিজেও এদিন পদাতিক এক্সপ্রেসে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

এদিন রবীন্দ্রনাথ ঘোষ দাবি করেন, আগামী লোকসভা নির্বাচনে কোচবিহার আসনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীকে পাঁচ লক্ষ ভোটে জিতিয়ে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উপহার দেওয়া হবে।

জেলা থেকে প্রায় ১০ হাজার কর্মী কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। শুক্রবারও বিভিন্ন ট্রেনে কলকাতা পৌঁছবেন তারা। এদিন ফের একবার তিনি বিজেপিকে কটাক্ষ করেছেন মন্ত্রী। তাঁর দাবি কোচবিহার জেলায় বিজেপির কোন সাংগঠনিক ক্ষমতা নেই তাই কোন সভা করতে পারছে না। তিনি বলেন, কোন সময় রাম , কোন সময় হনুমানের নামে এরা রাজনীতি করছে। তৃণমূল কংগ্রেস মানুষের সঙ্গে থাকে, তাই মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসের পাশে আছে।

যদিও রবীন্দ্র নাথ ঘোষের বক্তব্যকে গুরুত্ব দিতে নারাজ জেলা বিজেপির মুখপাত্র উৎপল কান্তিদেব। তাঁর দাবি রবীন্দ্রনাথ বাবু ভালই জানেন গত ডিসেম্বর মাসে বিজেপির গনতন্ত্র বাঁচাও যাত্রাতে কত লোক এসেছিলেন, তাই আগামী লোকসভা নির্বাচনেই প্রমান হয়ে যাবে কোচবিহারের বিজেপির সংগঠন কতটা।