স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কলা বিভাগের স্নাতক কোর্সে ভর্তির অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে৷ এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে ইচ্ছুকরা আগামী ১৭ জুন পর্যন্ত ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন৷

বাংলা, ইংরাজি, সংস্কৃত, ইতিহাস, দর্শনশাস্ত্র, রাষ্ট্রবিজ্ঞান এবং অর্থবিদ্যায় অনার্সের জন্য আবেদন করতে পারবেই পড়ুয়ারা৷ আবেদনকারীরা যে বিষয়ে অনার্স নিতে চান উচ্চ মাধ্যমিক বা তার সমতুল্য কোনও কোর্সে সেই বিষয়ে নূন্যতম ৫০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে৷ এসসি, এসটি এবং পিডব্লুডিদের ক্ষেত্রে পাঁচ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়েছে৷ ২০১৮, ২০১৭ ও ২০১৬ সালে যারা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছেন তারাই শুধুমাত্র ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন৷

কলা বিভাগের কোনও বিষয়ে পড়তে ইচ্ছুক পড়ুয়াকে একটি ইলেকটিভ বিষয়ও বেছে নিতে হবে৷ ইলেকটিভ বিষয়গুলি হল, ইংরাজি, বাংলা, সংস্কৃত, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, দর্শনশাস্ত্র, অর্থবিদ্যা, ইতিহাস, রবীন্দ্র সঙ্গীত, নাটক, নৃত্য, কন্ঠ সঙ্গীত, বাদ্যযন্ত্র সঙ্গীত, পারকুশন এবং গণজ্ঞাপন ও ভিডিওগ্রাফি৷ তবে, যে বিষয়ে অনার্স, সেই বিষয়কেই ইলেকটিভ হিসাবে নেওয়া যাবে না৷ ক্লাস শুরু হওয়ার ১ মাসের মধ্যে কেউ চাইলে তার ইলেকটিভ বিষয় বদলে নিতে পারবেন৷

মূলত উচ্চ মাধ্যমিকে নম্বরের ভিত্তিতে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে৷ কিন্তু, সিবিএসই ও আইএসসি বোর্ড ছাড়া অন্য রাজ্যের বোর্ডের ক্ষেত্রে প্রবেশিকা পরীক্ষা নেওয়া হবে৷ যারা এই প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ করবেন তারাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবেন৷

আবেদনের জন্য ছাত্রছাত্রীদের ২০০ টাকা ও তার সঙ্গে ব্যাংকের চার্জ দিতে দিতে হবে৷ পেমেন্ট গেটওয়ের মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৮ জুন৷ রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে: http://oasman.rbu.net.in/AdmissionNoticeFile/Notice_DINJQYZXTJ_20180608160350.pdf

সরাসরি অনলাইন আবেদন করার জন্য ক্লিক করুন এই লিঙ্কে: http://admission.rbu.net.in/Login.aspx

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.