চেন্নাই: আইপিএল ২০২১-এর ম্যাচ নম্বর ১৭৷ শুক্রবার চিপকে মুখোমুখি পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও পঞ্জাব কিংস৷ প্রথম ম্যাচ জিতলেও হারের হ্যাটট্রিক করে চ্যাম্পিয়ন মুম্বইয়ের সামনে নামছে লোকেশ রাহুলের পঞ্জাব৷ শেষ তিন ম্যাচ হেরে পয়েন্ট টেবলে সবার নিচে প্রীতি জিন্টার পঞ্জাব কিংস৷ জার্সি ও নাম বদল করেও ভাগ্য পরিবর্তন হয়নি পঞ্জাবের৷

অন্য দিকে প্রথম ম্যাচে হারলেও পরের দু’টি ম্যাচ জিতে কামব্যাক করেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ কিন্তু আগের ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে হার হজম করেছে রোহিত অ্যান্ড কোং৷ এর আগের দু’টি ম্যাচে অল্প রানের পুঁজি নিয়ে জিতলেও দিল্লির বিরুদ্ধে শেষরক্ষা হয়নি মুম্বইয়ের৷ দিল্লি বোলারদের সামনে দেড়শো রানের আগেই শেষ হয়ে গিয়েছিল পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা৷ রান তাড়া করে জিততে সমস্যা হয়নি দিল্লির৷ শুক্রবার চিপকে তাদের পঞ্চম ম্যাচ খেলতে নামছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ চার ম্যাচে দু’টি জিতে চার নম্বরে রয়েছে রোহিত শর্মার দল৷

অন্য দিকে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে জয় দিয়ে ২০২১ আইপিএল শুরু করলেও টানা তিন ম্যাচ হেরেছে পঞ্জাব কিংস৷ এর ফলে পয়েন্ট টেবলে লাস্ট বয় হয়ে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে নামছে তারা৷ আগের ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে নাস্তানাবুদ হয়েছে রাহুলের দল৷ চিপকে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে চূড়ান্ত ব্যর্থ হয় পঞ্জাব৷ কেএল রাহুল, ক্রিস গেইল, নিকোলাস পুরান সমৃদ্ধ পঞ্জাবের ব্যাটিং লাইন-আপ প্রথম চার ম্যাচের মধ্যে দ্বিতীয়বার চূড়ান্তভাবে ব্যর্থ। রিলে মেরেডিথ এবং ঝাই রিচার্ডসনের পরিবর্তে মোইসেস হেনরিকস এবং ফ্যাবিয়ান অ্যালেনকে দলে নিয়েও কোনও লাভ হয়নি। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন অল-রাউন্ডার হেনরিকস।

ভুবনেশ্বর কুমার, খলিল আহমেদ, অভিষেক শর্মাদের দাপুটে বোলিং’য়ে পঞ্জাবের একটি পার্টনারশিপও লম্বা হয়নি। ২৫ রানের গন্ডি পেরোননি কোনও পঞ্জাব ব্যাটসম্যানই। সর্বোচ্চ ২২ রান করেছিলেন পঞ্জাবের দুই ব্যাটসম্যান ময়াঙ্ক আগরওয়াল এবং শাহরুখ খান। আজ মুম্বই বোলারদের বিরুদ্ধে ফের একবার পরীক্ষার সামনে রাহুল-গেইলরা৷ এদিনও দলে কয়েকটি পরিবর্তনের রাস্তায় হাঁটতে পারে পঞ্জাব৷

পঞ্জাব কিংসের সম্ভাব্য একাদশ: ময়াঙ্ক আগরওয়াল, লোকেশ রাহুল (ক্যাপ্টেন), ক্রিস গেইল, দীপক হুডা, নিকোলাস পুরান, শাহরুখ খান, ফাবিয়েন আলেন, ঝাই রিচার্ডসন, রবি বিষ্ণুই, মহম্মদ শামি ও অর্শদীপ সিং৷

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স সম্ভাব্য একাদশ: কুইন্টন ডি’কক, রোহিত শর্মা (ক্যাপ্টেন), সূর্যকুমার যাদব, ইশান কিশান, হার্দিক পান্ডিয়া, কাইরন পোলার্ড, ক্রুনাল পান্ডিয়া, রাহুল চাহার, জয়ন্ত যাদব, জসপ্রীত বুমরাহ ও ট্রেন্ট বোল্ট৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.