অমৃতসরঃ কোবিন্দকে রক্ত দিয়ে চিঠি লিখল পঞ্জাবের দুই তরুণী। মিথ্যা মামলায় অব্যাহতি চেয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের দ্বারস্থ হলেন তারা। পঞ্জাবের মগা শহরের ওই দুই তরুণীর অভিযোগ কবুতরবাবাজি এবং প্রতারণার মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে তাদের। তাই চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন তারা।

ওই দুই তরুণীর নাম নিশা জোট কৌর এবং আমন জোট কৌর। চিঠিতে তারা লিখেছেন, কবুতরবাজি এবং প্রতারণার অভিযোগে তাদের নামে মামলা রুজু হয়েছে। ভারতীয় দণ্ড বিধির ৪২০ ধারায় মামলা হয়েছে তাদের নামে। মামলার সঠিক তদন্ত চেয়ে পুলিশে এ বিষয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন তারা। তাদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে বলেও পুলিশকে জানিয়েছিলেন তারা। কিন্তু তাদের কোন কথাই শোনে নি পুলিশ! তাই বাধ্য হয়েই রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ দাবি করছেন তারা।

এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তারা জানান, “কবুতরবাজি এবং প্রতারণার অভিযোগে তাদের নামে মামলা রুজু হয়েছে। ভারতীয় দণ্ড বিধির ৪২০ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। পুলিশে এ বিষয়ে তদন্ত করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন তারা। তারা এও জানিয়েছিলেন তাদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। কিন্তু তাদের কোন কথাই শোনে নি পুলিশ!”

দুজন রাষ্ট্রপতিকে লেখা ওই চিঠিতে দাবি করেছেন, তারা যদি এই মিথ্যা মামলায় অব্যাহতি না পান তাহলে, তাদের পরিবার যেন অন্তত নিরাপত্তা পায়। সেবিষয়ে নজর দেওয়ার কথাও জানান তারা।

অন্যদিকে মগা পুলিশের ডিএসপি কুলজিন্দর সিং ওই দুই তরুণীর আনা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ওই দুই তরুণীর বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা রুজু হয়েছে। তদন্ত করা হচ্ছে। এই তদন্ত প্রক্রিয়া এখনও চলছে। তিনি আরও বলেন, আমি শুনেছি ওরা রাষ্ট্রপতির কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। কিন্তু আমি আনুষ্ঠানিকভাবে ওনাদের কাছে কোন বার্তা পাই নি। আমরা খুব শীঘ্রই এই মামলার নিস্পত্তি করব।”