নয়াদিল্লি: ভারতের ইতিহাসে সবথেকে বড় জঙ্গি হামলা। ভয়ঙ্কর এই হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ান শহিদ হয়েছেন। ভয়ানক এই ঘটনায় গর্জে উঠেছে গোটা দেশ। আওয়াজ উঠেছে বদলা নেওয়ার। কড়া ভাষায় বদলা নেওয়ার ইঙ্গিত ঘটনার পরেই দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

সামরিক ক্ষেত্রে তো বটেই, কূটনৈতিকভাবেও পাকিস্তানকে একেবারে মারার চেষ্টা শুরু করেছে ভারত। যখন একদিকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বদলা নেওয়ার দাবিতে ফুঁসছে গোটা দেশ অন্যদিকে নিঃশব্দে পাকিস্তানের মাটিতে ‘সাইবার-অ্যাটাক’ চালিয়ে যাচ্ছে ভারতের সাইবার সেনারা।

ঘটনার পর থেকে এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানের ৭০টিরও বেশি সরকারি এবং বেসরকারি ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে ভারতের হ্যাকাররা। ভারতে ভয়ঙ্কর এই হামলার পরেই বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ ফয়সল জানিয়ে ছিলেন, পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রকের ওয়েবসাইটটি খোলা যাচ্ছে না। আর তা খোলা যাচ্ছে না বিভিন্ন দেশ থেকে অভিযোগ আসছে। এটি ভারতের হ্যাকারদের কাজ বলে সন্দেহ করছে পাকিস্তান। ফয়সল আরও জানিয়ে ছিলেন, যদিও সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটটি খুলতে পাকিস্তানে কোনও সমস্যা হচ্ছে না। কিন্তু সৌদি আরব, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন ও নেদারল্যান্ডসে এই ওয়েবসাইট খোলা যাচ্ছে না।

শুধু বিদেশমন্ত্রকের ওয়েবসাইটিই নয়, একাধিক ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে। পুরো বিষয়টি ভারতের হ্যাকার গ্রুপ TEAM-1 Crew নেতৃত্বে ঘটছে বলে দাবি করা হয়েছে। ইতিমধ্যে এই হ্যাকার গ্রুপ কোন কোন পাকিস্তানের সাইট হ্যাক করেছে তার একটা তালিকা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে দিচ্ছে। একই সঙ্গে এই হ্যাকার গ্রুপের তরফে আরও দাবি করা হয়েছে যে, পাকিস্তানের উপর চলা এটাই সবথেকে বড় সাইবার অ্যাটাক।

শুধু হামলা করাই নয়, পাকিস্তানের সাইটগুলি একের পর এক হ্যাক করে সেখানে একটি ম্যাসেজও ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। বলা হচ্ছে, ভারত কখনও ১৪/০২/২০১৯-এর ঘটনা ভুলবে না। আর এই সাইবার হানা শহিদদের সম্মান জানানোর জন্যে।

এক ক্লিকে দেখে নিন হ্যাক হওয়া পাকিস্তানের ওয়েবসাইটগুলি-