খোলা চুল, কপালে ছোট টিপ, হালকা লিপস্টিক,  মানানসই গহন আর পরনে শাড়ি। মানে এবার শারদউৎসবে যাঁরা সাজতে চান বারো হাতে। বছররের অন্য সময় যাই পরুন না কেন, পুজোর পাঁচটা দিন শাড়ি ছাড়া ভাবতেই পারছেন না? কিন্তু কি পড়বেন, কখন পড়বেন বুঝে উঠতে পারছেন না? চিন্তা নেই আপনার সঙ্গে আছি তো আমরা। পুজোর সকাল থেকে রাত পর্যন্ত কিভাবে ট্রানজিশন হবে আপনার স্টাইল। কোনদিন কি রং, কোন শাড়িতে এবছর মাত করবেন পুজোমন্ডপ- তারই হদিশ রইল এই সংখ্যায়। লিখছেন মানসী সাহা-

ষষ্ঠী:
পটের ছবি আঁকা শাড়ি: এবার পুজোর ফিউশন ফ্যাশন ইন। তাই শুরুতেই চমকেদিন সবাইকে। ষষ্ঠীতে পড়ুন পটচিত্র আঁকা শাড়ি। সাধারণত কেরালা কটন শাড়ীতে প্রচলিত পটচিত্রের ধারাবাহিক ছবি আঁকা হয়।  কোনও শাড়িতে সাঁওতালদের জন্মকথা, কোনও শাড়িতে মাছের বিয়ের মতো পটের গানের দৃশ্য আঁকা হয়। শাড়ি গুলিতে পাড়ের দিকে বেশি ছবি আঁকা হয়। ভেতরে অল্প কিছু ছবি থাকে। তবে পট আঁকার জন্য প্রাকৃতির রং ব্যবহার করা হলেও পোশাকে কিন্তু ব্যবহার করা হয় ফেব্রিক। অর্থাৎ ট্রেন্ডি ও ট্রাডিশনল দুটি কথা বলবে।

SOSTI

সপ্তমী: হ্যান্ডলুমের শাড়ি: হ্যান্ডলুমের শাড়ি এখন ট্রেন্ড চলছে। তাই সপ্তমীর সন্ধ্যায় বেছে নিতে পারেন চওড়া পার দেওয়া একরঙা হ্যান্ডলুমের শাড়ি। জানিয়ে রাখি ডার্ক কালার এবার মাতাবে পুজোর বাজার। তাই লালা, কমলা, গাঢ নীল, ডার্টি পিঙ্ক এগুলি বেছে নিন। এছাড়া এইদিন মটকা, জুটের শাড়িও বেছে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে বলে রাখি হ্যান্ডলুমের জন্য সেরা ঠিকানা যে কোনও বুটিক।

SOPMOMI

অষ্টমী: লালা পাড়ে সাদা শাড়ি: পুজোর আর চারটে দিন যে যাই পড়ুক না কেন অষ্টমীর দিন সকালটা কিন্তু শাড়ি মাস্ট। আর সেটা অবশ্যই ঢাকাই লাল পাড়ে সাদা শাড়ি। তবে জেন ওয়াইরা এইদিন সকালে এক কালারের ঢাকাই পড়তে পারেন। যেক্ষেত্রে কচি কলাপাতা, ডিপ গ্রিন কিংবা হলুদ।

astomi

এবার আসা যাক সন্ধ্যার কথায়। আগেই বলে রাখি অষ্ঠমী মানেই একটা ট্রেডিশনাল লুক। তাই ট্র্যাডিশনাল গাদোয়াল, বোমকাই, ঢাকাই শাড়ির সঙ্গেই ফ্যাশনে ফিরেছে সুতির শাড়ির ইন্টেলেকচুয়াল লুক। নানা উজ্জ্বল রঙে একেবারে প্লেন বোনা শাড়ির সঙ্গে পিঠখোলা বা ডিপ নেক সাহসী ব্লাউজে থাক লটকন বা ফিতের বাঁধন। সঙ্গে ছোট হাতায় খানিকটা এমব্রয়ডারি। শাড়িতে পাড়ে-আঁচলে বা ব্লাউজে নানা চেক্স-ও চলছে। এছাড়া আধুনিক ডিজাইনের সিল্ক ও সুতির কাঁথা শাড়ি, বাংলাদেশের কটন সিল্ক রাজশাহী শাড়ি, খাদির নীলাম্বরী জামদানি, সহজপাঠ আর জাতকের গল্পে সাজানো বাটিক এবং টাই অ্যান্ড ডাই শাড়িও।

নবমী: জমকালো কাঞ্জিভরম: নবমীর দিন চাই জমকালো শাড়ি। এক্ষেত্রে কাঞ্জিভরম খুব ভাল। এছাড়া ইক্কত কিংবা ভারি কাজ করা কোনও ডিজাইনার শাড়ি বেশ মানাবে। আসলে এইদিনও পুজোর শেষ। তাই নিজেকে রাঙিয়ে তুলুন শারদিয়ার রঙে। জানিয়ে রাখি, নেটের শাড়ি এবার আউট অফ ফ্যাশন। তাই নেট শাড়ির দিকে নৈব নৈব চ এ বছরটা।

nabomi

দশমী: সিঁদুর রঙে বিদায়: মা-কাকিমারা এই দিনটি লালা পাড়ে সাদা শাড়ি ছাড়া বিশেষত কিছু পড়েন না। কিন্তু আজকাল মেয়েরাও দশমীতে মেতে ওঠে সিঁদুর খেলায়। তাই যদি সাদা শাড়িতে দাগ লাগার ভয় থাকে তাহলে এইদিন গাঢ রঙের কোন শাড়ি পড়ুন। তবে এইদিন সিল্ক পড়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

DOSHOMI

Advertisements