অভিনেত্রী কণিনীকার কাছে পুজোটা নিজেকে রিচার্জ করে নেওয়ার একটা উৎসব। সমস্ত চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে পাঁচটা দিন জমিয়ে আড্ডা মারার মোক্ষম সুযোগ। আর তাইতো পুজোতে কলকাতা থাকবেন নাকি কালকাতার বাইরে? প্রশ্নটা করতেই প্রায় চীৎকার করে বলে উঠলেন কণিনীকা। ”পুজোতে কলকাতার বাইরে? ভাবতে পারি না, তবে কাজ থাকলে আলাদা কথা”

তোমার কাছে পুজো মানে….

আসলে সারাটা বছর কাজের এত চাপ থাকে, যে নিজেকেই ঠিক মতো সময় দিতে পারি না। একেবারে হাঁপিয়ে উঠি। কিন্তু পুজোর পাঁচটা দিন কাজ থেকে দূরে বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে, ডায়েট ভুলে হৈ হৈ করে কাটাই। কিছু রশদ পেয়ে যাই নিজেকে রিচার্জ করার। তাই পুজো মানে আমার কাছে নিজেকে রিচার্জ করে নেওয়ায় একটা উৎসব।

ছোটবেলার পুজো….

দেখ, ছোটবেলায় আমার কাছে পুজো মানেই নতুন জামা। koni-1এখন তো সারাটা বছর কম বেশি কিছু না কিছু কিনতে থাকি, তো সেই পুজো শপিংয়ের মজাটা আর পাই না। কিন্তু ছোট বেলায় নতুন জামা পরে বাবা-মায়ের সঙ্গে প্যান্ডেল ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখতাম। তার মজাটাই ছিল আলাদা। তাছাড়া পুজোর ক’দিন পড়াশোনার কোনও বালাই ছিলনা, সারাটা দিন ভাই বোন সাবাই মিলে হৈচৈ করে কাটিয়ে দিতাম।

এখনকার পুজো……

বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কেমন যেন সব পাল্টে গিয়েছে। এখনও ‘মা’ আসেন কিন্তু আগের সেই মজাটা আর হয় না। তবে এখনও মা-বোনের সঙ্গে অষ্ঠমীর অঞ্জলি দিতে যাই। তবে আগে বন্ধুরা ছিল পুজোর একটা বিরাট অংশ। আর এখন আমার পুজোর দিনগুলি শুধু পরিবারের।

koni-2পুজোর কোন স্মৃতি….

টুকরো টুকরো পুজোর অনেক স্মৃতি আছে। তবে সব থেকে মেমরেবেল হল আইসক্রিমের ঘটনাটা। সেবার কলকাতায় প্রথম বিভিন্ন রকমের নতুন নতুন আইসক্রিম আসে। আর আমার তখনই গলা ব্যাথা হতে হল। ভাই-বোন সবাই আমার সমানে আইসক্রিম খাচ্ছে আর আমি হ্যাংলার মতো তাকিয়ে আছি। পরে অবশ্য গলা ব্যাথা কম হলে বাব আইসক্রিম খাওয়াতে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু ওই সময়টা যে কি খারাপ লাগছিল কি আর বলব।

পুজোর ফ্যাশন…….

ষষ্ঠী থেকে দশমী প্রতিদিন শাড়ি। পুজোতে শাড়ি ছাড়া কিছু ভাবতে পারছি না। আর শাড়ি পরতে আমার এমনিতেই ভালো লাগে। আর বাঙালির পুজোয় শাড়ি ছাড়া অন্য কিছু মানায় না।

পুজোর খাওয়া…….

দেখো হোটেলের সঙ্গে বাড়ির রান্নাঘরে কোনও তুলনা হয় না। এমনিতেই সারাটা বছর বাইরে অনেক খেয়ে থাকি, পুজোতে তাই ওনলি মায়ের হাতের রান্না। ছোট থেকে দেখে আসছি অষ্টমীর দিন মা বাড়িতে নিরামিষ রান্না করেন, এখনও পর্যন্ত সেই রেওয়াজটাই আছে। তবে নবমীতে জমিয়ে মাংসা। আসলে  মায়ের হাতের রান্নার কোনও তুলনা হয় না।

পুজোতে কলকাতা না বাইরে….

এবার পুজোতে কলকাতা আছি।

সাক্ষাৎকার: মানসী সাহা