করাচি: শাহিদ আফ্রিদির সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করল তাঁর পিএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজি করাচি কিংস৷ গত প্রেসিডেন্ট তথা ক্রিকেটার হিসাবে বছরই করাচি কিংসের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন তারকা অলরাউন্ডার৷ সম্পর্ক টিকল না এক মরশুমের বেশি৷

আরও পড়ুন: ইমরানকে আফ্রিদির ছক্কা: পাকিস্তান সামলাও পরে কাশ্মীর চাইবে

আফ্রিদির চুক্তি বাতিলের সঙ্গে কাশ্মীর প্রসঙ্গে তাঁর সাম্প্রতিক মন্তব্যের কোনও সংযোগ নেই৷ ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে তাঁর সংঘাত বাধে অন্য কারণে৷ করাচি কিংসের মালিক সলমন ইকবাল চেয়েছিলেন আফ্রিদি সংযুক্ত আরব আমীরশাহীর টি-১০ লিগ থেকে দূরে সরিয়ে রাখুক নিজেকে৷ আফ্রিদি টিম মালিকের এমন শর্তে রাজি হননি৷ তাই তারকা অলরাউন্ডারের সঙ্গে নিজেদের চুক্তি ছিন্ন করে করাচি কিংস৷

আরও পড়ুন: আফ্রিদির সঙ্গে ‘সেক্স’ নিয়ে মুখ খুললেন আরশি খান

আফ্রিদির পরিবর্তে করাচি ফ্র্যাঞ্চাইজি প্রেসিডেন্ট হিসাবে নিয়োগ করছে কিংবদন্তি ওয়াসিম আক্রমকে৷ আক্রম গত বছর মুলতান সুলতানসের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন৷ পেমেন্ট নিয়ে সমস্যা দেখা দেওয়ায় পিসিবি’র তরফে বিজ্ঞপ্তি মারফৎ মুলতান ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে আক্রমের চুক্তি বাতিলের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়৷ তার পরেই করাচি কিংসের পক্ষ থেকে আক্রমকে প্রস্তাব দেওয়া হয় প্রেসিডেন্ট হওয়ার৷ যে প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়েছেন প্রাক্তন পাক অধিনায়ক৷

আরও পড়ুন: বিগ বসের এই অতিথির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল শাহিদ আফ্রিদির

মজার বিষয় হল, আক্রমও আমীরশাহীর টি-১০ লিগের সঙ্গে ওতোপ্রতভাবে জড়িত৷ টি-১০ ফ্র্যাঞ্চাইজি মারাঠা অ্যারাবিয়ান্সের কোচ তথা ট্যালেন্ট হান্ট ডিরেক্টর হিসাবে যুক্ত রয়েছেন আক্রম৷ করাচির সঙ্গে চুক্ত করার আগে আক্রম স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে, তিনি টি-১০ লিগের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবেন না৷ পিএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজি আক্রমের ক্ষেত্রে বিষয়টি নিয়ে আপত্তি জানায়ানি৷