প্যারিস: সাসপেনশনের কারণে পিএসজি একাদশে ছিলেন না নেইমার। পাশাপাশি চোটের কারণে ফরাসি স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপে ও ঊরুগুয়ে স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানি’র সার্ভিস থেকেও এদিন বঞ্চিত হয় প্যারিস সা জাঁ। উলটোদিকে মরশুমে প্রথমবার ইডেন হ্যাজার্ড, গ্যারেথ বেল ও করিম বেঞ্জেমাকে সামনে রেখে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ওপেনারে ঘুঁটি সাজিয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদ ম্যানেজার জিনেদিন জিদান।

ভাবা গিয়েছিল রিয়ালের আপফ্রন্টে ত্রিফলা আক্রমনভাগ বুঝি ফালা-ফালা করে দেবে বিপক্ষ রক্ষণকে। কিন্তু মাঠে ঘটল আদতে উলটো ঘটনা। সারা ম্যাচে একটিও শট অন টার্গেট রাখতে ব্যর্থ তারকাখোচিত রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগ। ঘরের মাঠে বহু যুদ্ধের নায়ক অ্যাঞ্জেল দি মারিয়ার জোড়া গোলে ১৩ বারের ইউরোপ সেরাদের মাটি ধরাল পিএসজি। থমাস টাচেলের দলের কাছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে ০-৩ গোলে অসহায় আত্মসমর্পণ জিদানের ছেলেদের।

ঘরের মাঠে এদিন শুরু থেকেই ইতিবাচক দেখায় পিএসজি’কে। ফল পেতে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি তাদের। চলতি মরশুমে ইন্টার মিলান থেকে লোনে আসা মাউরো ইকার্ডির বাঁ-প্রান্তিক স্কোয়্যার পাস থেকে ১৪ মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন আর্জেন্তাইন দি মারিয়া। বক্সের মধ্যে নেওয়া তাঁর বাঁ-পায়ের চকিতে শট থিবো কুর্তোয়ার নাগাল এড়িয়ে জড়িয়ে যায় জালে। ৩৩ মিনিটে নিজের ও দলের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি তুলে নেনে দি মারিয়া।

বক্সের সামান্য বাইরে বল পেয়ে বাঁ-পায়ের নিখুঁত শটে রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষককে দ্বিতীয়বারের জন্য পরাস্ত করেন অরক্ষিত ডি মারিয়া। পিএসজি’র দ্বিতীয় গোলের ঠিক পরেই ব্যক্তিগত ক্যারিশমায় ডান-পায়ের দুর্দান্ত লবে জালে বল জড়ান গ্যারেথ বেল। কিন্তু ভিএআরে দেখা যায় বল রিসিভ করার সময় তা হাতে লাগিয়েছেন ওয়েলস তারকা। রিয়ালের গোল বাতিল করেন রেফারি।

৬০ মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুবর্ণ সুযোগ চলে আসে দি মারিয়ার কাছে। কিন্তু আগুয়ান কুর্তোয়াকে দেখে আলতো চিপে নিশানায় অব্যর্থ থাকতে পারেননি আর্জেন্তাইন মিডিও। দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরার সুযোগ এসেছিল লস ব্ল্যাঙ্কোসদের কাছে। দলনায়ক করিম বেঞ্জেমার একটি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল হয়। পাশাপাশি ফরাসি স্ট্রাইকারের একটি হেডও অল্পের জন্য বাইরে চলে যায়।

সবমিলিয়ে দু’গোলে পিছিয়ে থেকে সমতায় ফেরা তো হয়ইনি, বরং অতিরিক্ত সময় আরও একটি গোল হজম করে বসে রিয়াল। ৯১ মিনিটে বিপক্ষ রক্ষণের গলদ কাজে লাগিয়ে রিয়ালের কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দেন থমাস মেউনিয়ার।