লিসবন: অনামী আটলান্টার কাছে হেরে কী তাহলে আরও একবার থেমে যাবে নেইমার-এমবাপে সমৃদ্ধ পিএসজি’র চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালের স্বপ্ন? ৮৯ মিনিটে দাঁড়িয়েও প্যারিসের ক্লাবটির অনুরাগীরা আরও একবার হতাশার দীর্ঘশ্বাস ফেলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু ফোর্থ অফিসিয়াল ৫ মিনিট সংযুক্তি সময় যোগ করতেই বদলে গেল ম্যাচের চালচিত্র। এক গোলে পিছিয়ে থাকা থমাস টাচেলের পিএসজি শেষের কয়েক মিনিটে জোড়া গোল করে পৌঁছে গেল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে। আটলান্টার স্বপ্নের দৌড় থামিয়ে থ্রিলার জয়ে ১৯৯৪-৯৫ পর ফের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিতে প্যারিস সা জাঁ।

গোলের একাধিক সহজ সুযোগ নষ্টের খেসারত এদিন দিতে হতে পারত পিএসজি’কে। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে দিনের সহজতম সুযোগটি হাতছাড়া করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল তেকাঠিতে রাখতে ব্যর্থ হন ব্রাজিলিয়ান তারকা। পিএসজি’র গোল নষ্টের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ২৬ মিনিটে সেমিফাইনালের দিকে এক পা বাড়িয়ে দেয় শেষ আটে ইতালির একমাত্র প্রতিনিধি আটলান্টা।

জাপাতার পাস ধরে বক্সের মধ্যে বাঁ-পায়ের কার্লিং শটে বল জালে জড়িয়ে দেন পাসালিচ। এরপর প্রথমার্ধ জুড়ে পিএসজি’র গোল মিসের বহর চলে বেনফিকার স্টেডিয়ামে। যদিও পিএসজি দুর্গের শেষ প্রহরী কেইলর নাভাস একাধিক ক্ষেত্রে তৎপর থাকায় ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারেনি আটলান্টাও। পিছিয়ে পড়ে দ্বিতীয়ার্ধে নেইমারের পাশে কিছুটা ঝুঁকি নিয়েই কিলিয়ান এমবাপেকে জুড়ে দেন টাচেল। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নামেন জুলিয়ান ড্র্যাক্সলারও। আটলান্টা বক্সে আক্রমণ বজায় থাকলেও নেইমারদের আটকে দিয়ে আরও একটি স্মরণীয় জয়ের দিকে ধীরে-ধীরে এগিয়ে যেতে থাকে আটলান্টা।

সবাই যখন ধরে নিয়েছে ফের একবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চোকার্স হিসেবে প্রতিপন্ন হতে চলেছে ফ্রান্সের চ্যাম্পিয়নরা, ঠিক তখনই ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে সমতা ফেরায় পিএসজি। সৌজন্যে মার্কুইনহোস। দেশোয়ালি নেইমারের পাস থেকে মার্কুইনহোসের আলতো টোকা বিপক্ষ ডিফেন্ডারের পায়ে প্রতিহত হয়ে খুঁজে নেয় গোলের ঠিকানা।

পিএসজি সমতা ফেরানোর পর সবাই যখন অতিরিক্ত সময়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন ফের গোল। এক্ষেত্রে এমবাপে-এরিক চৌপো মটিং’য়ের যুগলবন্দি জয়সূচক গোল এনে দেয় পিএসজি’কে। ফরাসি স্ট্রাইকারের পাস থেকে স্লাইডারে বল জয়সূচক গোলটি করে যান স্বদেশী মটিং। শেষ চারে আরবি লেইপজেগ বনাম অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মধ্যে বিজয়ীদের মুখোমুখি হবে ফ্রান্সের ক্লাবটি।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও