ঢাকা: আদালতে খারিজ হয়েছে আবেদন। ঢাকা মহানগরের দুই পুর নিগমের ভোট হবে আগামী ৩০ জানুয়ারি। তবে ওই দিন সরস্বতী পুজো থাকায় সংখ্যালঘু ছাত্র সমাজ ও সংগঠনগুলি ক্ষুব্ধ।

সরস্বতী পূজার দিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বাতিলের দাবিতে অনড় তারা। এই দাবিতে নির্বাচন কমিশন ঘেরাও অভিযান করল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বিক্ষোভ মিছিলসহ ঘেরাও কর্মসূচি পালন করতে গেলে শিক্ষার্থীদের বাধা দেয় পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা শাহবাগ মোড়ে অবস্থান করেন।আড়াইঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখা হয়।

এর জেরে গুরুত্বপূর্ণ এই মোড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। তাদের নির্বাচন কমিশনে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।পরে দাবি আদায়ে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়ে সোয়া ৩টার দিকে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষোভকারীরা।

ঢাকা মহানগর পুর নির্বাচন হবে জানুয়ারিতেই। ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ঘিরে রাজনৈতিক উত্তাপ তুঙ্গে। কারণ বাংলাদেশের রাজধানীর এই দুই কর্পোরেশনের ভোট খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

এদিকে নির্বাচনের দিন নিয়ে চলছে বিতর্ক। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন আগেই ৩০ জানুয়ারি ভোটের দিন ঠিক করে। এরপরেই সংখ্যালঘু হিন্দু সমাজ দাবি করে, সরস্বতী পূজা থাকায় ভোটের দিন পাল্টাতে হবে।

এই মর্মে আদালতে রিট পিটিশন জমা দেওয়া হয়। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিত আদালত নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত তারিখ বজায় রেখেছে।

আর নিজেদের অবস্থানে অনড় পড়ুয়াদের সংখ্যালঘু অংশ। তাদের ঘেরাও বিক্ষোভের কারণে, এদিকে শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে বাংলামোটর থেকে শাহবাগ, সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ, মৎস্য ভবন থেকে শাহবাগ ও টিএসসি থেকে শাহবাগমুখী রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

শাহবাগের আশপাশ এলাকায় অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া কোনও যান চলাচল করতে পারেনি। এতে বিভিন্ন গন্তব্যের যাত্রীরা পড়েন দুর্ভোগে। আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেই শুরু হবে অবস্থান বিক্ষোভ।

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দেশের ক্ষমতায় পরপর তিনবার থাকা আওয়ামী লীগের প্রেস্টিজ ফাইট। বিরোধী বিএনপি, জাতীয় পার্টিও লড়াই করছে।

মূল লড়াই বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দল বিএনপির। আর্থিক দুর্নীতির মামলায় জেলে রয়েছেন খালেদা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ