স্টাফ রিপোর্টার, ইংরেজবাজার: কাটমানি ফেরতের দাবিতে তৃণমূলের সদস্যের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ জেলার ইংরেজবাজার থানার অমৃতি গ্রাম পঞ্চায়েতের কামাত এলাকায়।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ ওই টাকা চাইতে গেলে তাদের বাড়ি গিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন। এমনকি তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে ওই সদস্য ও তার দলবল। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘর দেওয়া হবে পঞ্চায়েতের মাধ্যমে। সেই কারণে অমৃতি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মেম্বাররা গ্রামবাসীদের ঘর পাইয়ে দেওয়ার জন্য কুড়ি হাজার টাকা করে কাটমানি নেয়।

আরও পড়ুন- মাদকের নেশার মতো ছড়াচ্ছে শিকার উৎসব, আশঙ্কা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ সংগঠনগুলির

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অমৃতি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার তৃণমূলের মেম্বার রতন রজক, টিঙ্কু রজক সহ বেশ কয়েকজন সদস্য গ্রামবাসীদের কাছ থেকে কুড়ি হাজার টাকা করে কাটমানি তোলে। কিন্তু দীর্ঘদিন হয়ে গেল গ্রামবাসীরা ঘর তৈরি টাকা পাওয়া যায়নি। গ্রামবাসীদের বলা হয়েছিল পঞ্চায়েত থেকে ঘর তৈরির জন্য এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা করে দেবে পঞ্চায়েত।

কিন্তু সদস্যরা জানিয়েছিল যে তাঁদেরকে ঘর দেওয়া হবে তার জন্য কুড়ি হাজার টাকা করে কাটমানি দিতে হবে। সেইমতো গ্রামবাসীরা অনেকেই সুদে আবার কেউবা লোন নিয়ে ওই টাকা সদস্যদের হাতে তুলে দেয়। এরপর ঘরের টাকা চাইতে গেলে প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে। পুলিশ দিয়ে ভয় দেখাচ্ছে। কিন্তু দীর্ঘদিন হয়ে গেলেও সেই ঘরের টাকা এখনো মেলেনি।

আরও পড়ুন- মুসলিম শিক্ষককে হেনস্থা: হিন্দু সংহতির কড়া সমালোচনা দিলীপের

বাধ্য হয়ে এদিন গ্রামবাসীরা ব্যানার প্ল্যাকার্ড হাতে ওই সদস্যদের বাড়ি ঘেরাও করে কাটমানি ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের জেরে বাড়ি ছেড়ে গা ঢাকা দেয় অভিযুক্ত মেম্বাররা।

যদিও তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি সরকারি কাজে যদি কোন মেম্বার বা সদস্যরা কাটমানি নেয় তাহলে দল তাদের পাশে দাঁড়াবে না। আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।