ফাইল ছবি

গান্ধীনগর: গুজরাতের ভাদোদরার কারেলিবাগের একটি ফ্ল্যাটে হানা দিয়ে মধুচক্রের পর্দাফাঁস করল পুলিশ৷ শনিবার ওই ফ্ল্যাট থেকে ২ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ উদ্ধার হয় পাঁচ মহিলা, যাদের মধ্যে একজন বাংলাদেশের৷

জানা গিয়েছে, উওমেনজ হেলপলাইন ১৮১ অভ্যামে ওই দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে একটি ফোন আসে৷ বলা হয়, বিজয় ওরফে বজেন্দ্র গুপ্তা এবং আনন্না ওরফে এমতিজ শেখ, অন্য শহর থেকে মহিলাদের নিয়ে এসে দেহব্যবসার কাজে নামাচ্ছে৷ অভ্যামের আধিকারিকরা কারেলিবাগ পুলিশ স্টেশনে বিষয়টি জানান এবং তাঁদের সঙ্গে ওই ফ্ল্যাটটিতে উপস্থি হন৷ সেখানেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে দেহব্যবসার কাজে যুক্ত মহিলাদের উদ্ধার করা হয়৷

ফাইল ছবি

পুলিশের মতে, বজেন্দ্র গুপ্তা ২ মাস আগে এখানে ভাড়াতে প্ল্যাটটি নেয়৷ সে এবং ওই মহিলারা একইসঙ্গে সেখানে থাকত৷ গ্রাহকদের চাহিদা মতো মহিলাদের প্রায়শই বিভিন্ন জায়গায় পাঠানো হত৷ উদ্ধার হওয়া মহিলাদের মধ্যে ২ জন কলকাতা, এজন থানে, আরেকজন মুম্বইয়ের৷

ফাইল ছবি

কীভাবে এই দেহব্যবসার কাজ করে যাচ্ছিল, গ্রাহকদের নম্বর কীভাবে জোগাড় করছিল অভিযুক্তরা তাইই এখন খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷ গুপ্তা এই ধরণের অপরাধমূলক কাজে আগেও জড়িত ছিল বলে মনে করছেন কারেলিবাগ পুলিশ স্টেশনের ইন্সপেক্টর আরএ জাদেজা৷ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷