ফাইল ছবি

গুয়াহাটি: দেহব্যবসার বড়সড় চক্রের পর্দাফাঁস করল সাতগাঁও পুলিশ৷ গ্রেফতার হয়েছে ২ ব্যক্তি৷ পাঞ্জাবাড়ির নামঘর পথে এই দেহব্যবসা দীর্ঘদিন ধরেই চলছিল বলে জানা যায়৷ গত ২৬ মার্চ পুলিশ হানা দিয়ে চন্দন নায়েক এবং দধিরাজ শর্মা নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে৷

জানা গিয়েছে, কয়েক মাস আগে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের একটি তরুণীকে জোর করে দেহব্যবসার কাজে নামানোর পরই বিষয়টি সকলের নজরে আসে৷ তবে এই চক্রের মূল মাথা এখনও অধরা৷ তাঁর খোঁজে ইতিমধ্যেই নেমে পড়েছে পুলিশ, শুরু হয়েছে তদন্তও৷

ফাইল ছবি

এদিকে, জয়পুরে, গোপন অভিযান চালিয়ে এক স্পা সেন্টারে হানা দেয় পুলিশ। আর সেখানে হানা দিতেই একেবারে অশ্লীল অবস্থায় ধরা পড়ে ১০ যুবক-যুবতী৷ গ্রেফতার করা হয় তাদের। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটে জয়পুর থানা এলাকায়।

ফাইল ছবি

কীভাবে দিনের পর দিন স্পা সেন্টারের আড়ালে এভাবে দেহব্যবসা চলত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে স্পা-সেন্টারের মালিককেও। ধৃতদের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই স্পা-সেন্টারের আড়ালে দেহ ব্যবসা চলছিল বলে অভিযোগ আসছিল পুলিশের কাছে। জনবসতি পূর্ণ এলাকার মধ্যেই এটি চলছিল বলে অভিযোগ।