স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: আইন মেনে প্রোমোটারির কাজ শুরু করেছিলেন পাঁচ বন্ধু৷ কিন্তু কাজে হাত দিতে না দিতেই বিপত্তি৷ স্থানীয় সিন্ডিকেটের নিত্য হুমকিতে জেরবার হয়ে ওঠেন এই যুব-প্রোমোটাররা৷

শনিবার সেই সিন্ডিকেট দলের আচমকা হামলায় গুরুতর জখম হলেন ওই প্রোমোটারদের একজন৷ তাঁর নাম রাজীব পুরী৷ এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

জানা গিয়েছে, ওয়াটগঞ্জ থানার কবিতীর্থ সরণিতে একটি ফাঁকা জায়গায় বহুতল নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন রাজীব পুরী ও তাঁর কয়েকজন বন্ধু৷ আইন মেনে বহুতল নির্মাণের কাজ শুরু করলেও স্থানীয় সিন্ডিকেটের হুমকিতে কোনঠাসা অবস্থা হয়ে ওঠে তাঁদের৷ অভিযোগ, তাঁদের কাছ থেকে ইট, বালি, স্টোনচিপ কেনার জন্য গত কয়েকমাস ধরে হুমকি দিচ্ছিল স্থানীয় সিন্ডিকেট দলের তিনজন৷ তাদের কাছ থেকে ইমারতি দ্রব্য কেনার জন্য হুমকিও দেওয়া হত৷

গত তিন দিন ধরে হুমকির মাত্রা বেড়ে গিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে৷ সূত্রের খবর, শনিবার রাতে রাজীব পুরীর বাড়িতে হানা দেয় সিন্ডিকেটের একটি দল৷ বাড়ির সামনেই দু’ পক্ষের বচসা হয়৷ অভিযোগ, বচসা চলাকালীন আচমকা রাজীব পুরীকে ধারাল অস্ত্র নিয়ে হামলা করে সিন্ডিকেট দলের বিবেক সিং৷ মাথায় ছুরির আঘাত লাগায় গুরুতর জখম হয়েছেন রাজীব পুরী৷

ঘটনার পর শনিবার রাতেই বিবেক সিংয়ের নামে ওয়াটগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন রাজীব পুরী৷ তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতেই অভিযুক্ত বিবেক সিংকে গ্রেফতার করেন পুলিশ৷ তার বিরুদ্ধে ৩০৭(হত্যার চেষ্টা) ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে৷ রবিবার তাকে আলিপুর আদালতে তোলা হলে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক৷