ছবি- প্রতীকী

স্টাফ রিপোর্টার, সোনারপুর: কৃষকদের জমি জাল দলিল করে হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক প্রমোটারকে গ্রেফতার করল দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুর থানার পুলিশ৷

জমি হাতানোর পাশাপাশি জমির আসল মালিকদের খুনের হুমকির ও অভিযোগ উঠেছে অমিত গঙ্গোপাধ্যায় নামে ওই প্রমোটারের বিরুদ্ধে৷

আরও পড়ুন: হেলমেটহীন ‘হিরো’দের তালিকার শীর্ষে কলেজ পড়ুয়ারা

রবিবার বিকেলে অভিযুক্তকে গড়িয়া স্টেশন চত্বরে গ্রেফতার করে সোনারপুর থানার পুলিশ৷ সোমবার তাকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন৷ এদিন অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবিতে আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখান ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ও তার পরিবারের লোকেরা৷

সোনারপুর থানার উকিলা পাইকপাড়ার বাসিন্দা সাজাহান জমাদারের ৪২ শতক পৈতৃক জমি ভুয়ো দলিল তৈরি করে, তা নিজের নামে রেজিস্ট্রি করে নিয়েছিলেন অভিযুক্ত৷ বিষয়টি জানতে পেরে এ বিষয়ে সাজাহানবাবু প্রতিবাদ করলে তাকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে খুনের হুমকি দেয় অভিযুক্ত প্রমোটার অমিত গঙ্গোপাধ্যায় ও তার সঙ্গীরা৷

আরও পড়ুন: পরীক্ষার্থীদের সাহায্যে এগিয়ে এল যুব তৃণমূল

অভিযোগ, সোনারপুর থানা এলাকার বহু কৃষকের জমি অমিত গঙ্গোপাধ্যায় ও তার সহযোগী সন্দীপন প্রামাণিক মিলে গুন্ডা মস্তানদের জোড়ে ভুয়ো কাগজ বানিয়ে আত্মসাৎ করেছেন৷ অন্যের জমির জাল দলিল বানিয়ে সেখানে প্রমোটিং এর পাশাপাশি বহিরাগতদের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন৷

এ বিষয়ে কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে খুনের হুমকি ও দিয়েছেন অভিযুক্তরা৷ অবশেষে এই প্রমোটার অমিত গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ক্ষতিগ্রস্ত এক জমির মালিক সাজাহান জমাদার৷ সেই ঘটনার তদন্তে নেমে সোনারপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত অমিত গঙ্গোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে৷

আরও পড়ুন: পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর শ্লীলতাহানিতে গ্রেফতার অভিযুক্ত গৃহশিক্ষক

ধৃতকে এদিন বারুইপুর আদালতে তোলার সময় তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আদালত চত্বরেই বিক্ষোভ দেখান বহু কৃষক ও ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিকরা৷ এই ঘটনার পিছনে আর কে বা কারা জড়িত রয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও