দাভোসঃ  আর মাসখানেক পরেই লোকসভা নির্বাচন। আর নির্বাচনের আগে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সক্রিয় রাজনীতি এনে কার্যত মাস্টারস্ট্রোক রাহুল গান্ধীর। কংগ্রেস সভাপতির এহেন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ।

এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কমলনাথ জানিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনের আগে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সক্রিয় রাজনীতিতে আসা নেতা-কর্মীদের আরও উৎসাহ যোগাবে। উত্তরপ্রদেশের ক্ষেত্রে দল যথেষ্ট অক্সিজেন পাবে বলে মনে করেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী মনে করেন, শুধু প্রিয়াঙ্কা গান্ধীই নয়, জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াও জথেষ্ট রাজনৈতিকভাবে উদ্যোম। রাহুল গান্ধীর দেওয়া নয়া কাজ যথেষ্ট দায়িত্ব দিয়েই তিনি করবেন বলে মত মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের। একই সঙ্গে সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের রাজনীতিতে নতুন প্রজন্মের প্রয়োজন। আর নতুন এই প্রজন্মই লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেসকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে বলে মত তাঁর।

প্রসঙ্গত, বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে সোনিয়া কন্যা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা রাজনীতিতে তার প্রবেশের কথা ঘোষিত হল৷ এই পদের হাত ধরেই রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে প্রবেশ করলেন সোনিয়াকন্যা৷ জানা গিয়েছে, পূর্ব উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করলেন তিনি৷

অন্যদিকে, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক করা হল৷ কে.সি বেণুগোপালকে এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) করা হল৷

প্রসঙ্গত, গুলাম নবি আজাদের স্থানে এলেন প্রিয়াঙ্কা৷ অন্যদিকে, গুলাম নবি আজাদ হরিয়ানাতে এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে থাকবেন বলে জানা গিয়েছে৷ ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই নিজের দায়িত্ব বুঝে নেবেন প্রিয়াঙ্কা৷ এদিকে রবার্ট ভাঢরা স্ত্রী প্রিয়াঙ্কার রাজনীতিতে যোগদানে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV