মুম্বই: ২০১৮ সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে শতরান। এরপর দু’ম্যাচের টেস্টে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে সিরিজ সেরার পুরস্কার। এরপর দ্ব্যর্থহীনভাবেই জাতীয় দলের জার্সিতে ওপেনিংয়ে নির্বাচকদের প্রথম পছন্দ হয়ে ওঠেন এই মুম্বইকর ব্যাটসম্যান। এরপর নভেম্বরে হাইভোল্টেজ অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরুর ঠিক আগেই ছন্দপতন। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পেয়ে সিরিজ থেকে ছিটকে যেতে হয় প্রতিশ্রুতিমান ওপেনারকে।

এরপর মাস তিনেক কেটে গিয়েছে। চোট সারিয়ে ছন্দে ফিরছেন বিধ্বংসী এই ওপেনার ব্যাটসম্যান। তবে সামনেই কড়া নাড়ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মজে জাতীয় দল। তাই ঘরোয়া ক্রিকেটের মাধ্যমেই মাঠে ফেরার লক্ষ্যে নিভৃতে অনুশীলন শুরু করেছেন পৃথ্বী। অজিদের ডেরায় ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয়ের শরিক হওয়া হয়নি। তাতে কি? সৈয়দ মুস্তাক আলি টুর্নামেন্টে মুম্বইয়ের হয়ে মাঠে ফিরতে তৈরি পৃথ্বী। সেই লক্ষ্যেই শুরু হয়েছে নেটে গা ঘামানো।

টেস্ট সিরিজ জিতলেও ওপেনিং সমস্যায় ক্যাঙ্গারুর দেশে ভুগতে হয়েছে ভারতীয় দলকে। লোকেশ রাহুল-মুরলি বিজয়ের খারাপ পারফরম্যান্সের পর পরিবর্ত হিসেবে উড়ে যাওয়া ময়াঙ্ক আগরওয়াল হাল ধরেন ওপেনিংয়ে। তবে না থেকেও পুরো সিরিজে সমানভাবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন পৃথ্বী। আর অজিদের দেশে সিরিজ শুরুর ঠিক আগে চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার ঘটনায় যারপরনাই হতাশ বছর কুড়ির এই ব্যাটসম্যান জানাচ্ছেন, ‘প্রচন্ড মুষড়ে পড়েছিলাম। অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী বোলিং লাইন আপের সামনে নিজের ব্যাটিং শক্তি পরীক্ষার দুর্দান্ত সুযোগ ছিল।’

তবে পৃথ্বীর মতে, ‘কিছু কিছু বিষয় নিজের হাতে থাকে না। মুস্তাক আলি টুর্নামেন্টের দিকে তাকিয়ে রয়েছি ব্যাটিংয়ে পুরনো টাচ এবং একইসঙ্গে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে।’ অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ শুরুর আগে প্রস্তুতি ম্যাচে ক্যাচ ধরতে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পান পৃথ্বী। প্রাথমিক রিপোর্টের পর দ্বিতীয় টেস্টে তাঁর ফিরে আসার সম্ভাবনা থাকলেও সপ্তাহ গড়াতেই তা অন্য চেহারা নেয়। টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে দেশে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেয়। এরপর বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে শুরু হয় তাঁর রিহ্যাব।

মুম্বইকর এই ব্যাটসম্যানের মতে, ‘চোট পাওয়ার দিনকয়েকের মধ্যে ব্যাথা কমায় মনে করা হচ্ছিল দ্বিতীয় টেস্টে মাঠে ফিরতে পারব। কিন্তু ফের ব্যাথা অনুভব হওয়ায় পরিস্থিতি জটিল হয়। এরপরই দল আমাকে দেশে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেয়। আমিও তাদের সিদ্ধান্তকে মেনে নিই।’