বেঙ্গালুরু: খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে পণ্ডিত এনআর বিজয়েন্দ্র শর্মাকে। তাঁর পরামর্শেই ঠিক হয়েছে রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর দিনক্ষণ। সেই পণ্ডিত এনআর বিজয়েন্দ্র শর্মাকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই পুলিশে অভিযোগ জানিয়েছেন এই ধর্মগুরু। তাঁর নিরাপত্তা বাড়িয়েছে কর্নাটক সরকার।

দেশর প্রথম সারির বহু রাজনীতিবিদ, শিল্পপতি থেকে শুরু করে খ্যাতনামা একাধিক ব্যক্তিত্ত্ব ভবিষ্যতদ্রষ্টা হিসেবে তাঁকে ভরসা করেন। পণ্ডিত এনআর বিজয়েন্দ্র শর্মা থাকেন কর্নাটকের বেলগামিতে। তাঁর পরামর্শেই আগামী বুধবার ৫ আগস্ট সকালে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজো হওয়ার কথা।

এই ধর্মগুরুর অভিযোগ, রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর দিনক্ষণ নির্ধারণ করায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তাঁকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এমনকী তাঁকে খুনেরও হুমকি দিচ্ছে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা।

কয়েকজন তাঁকে ভূমি পুজোর দিনক্ষণ পিছিয়ে দিতেও হুমকি দিচ্ছে। ইতিমধ্যেই কর্নাটকের তিলকভাড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। এদিকে, পণ্ডিত এনআর বিজয়েন্দ্র শর্মাকে হুমকির বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে কর্নাটক সরকার। ধর্মগুরুর সুরক্ষায় পর্যাপ্ত পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফোন নম্বরের সূত্র ধরে হুমকি-ফোনের তদন্ত শুরু করেছে কর্নাটক পুলিশ।

বুধবার অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর অনুষ্ঠান। ভূমি পুজোর জন্য কোনও আয়োজনই বাকি রাখছেন না মন্দির ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ। ভূমি পুজোয় উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী-সহ ও বিজেপির শীর্ষ নেতারা। তবে করোনা আবহে সুরক্ষার সবরকম ব্যবস্থা করেছে শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট।

ভূমি পুজোর অনুষ্ঠান মঞ্চে প্রধানমন্ত্রী-সহ ৫ জনের বসার ব্যবস্থা হয়েছে। এছাড়াও কোনওভাবেই যাতে ভূমি পুজোকে কেন্দ্র করে অযোধ্যায় ভিড় বা জমায়েত না হয় সেব্যাপারেও সজাগ দৃষ্টি রয়েছে প্রশাসনের।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।