হাওড়া: তৃণমূলের শহিদ দিবস৷ দু’দিন আগে থেকেই কলকাতায় দলে দলে কর্মী-সমর্থকরা আসতে শুরু করেছেন৷ শিয়ালদহ হোক কিংবা হাওড়া-স্টেশনচত্বরে জনজোয়ার৷ মিলনমেলা প্রাঙ্গনের ছবিটাও একইরকম৷

২১ জুলাই ধর্মতলায় তৃণমূল যুব কংগ্রেসের শহিদ সমাবেশ উপলক্ষে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জেলা থেকে কর্মী সমর্থকরা আসতে শুরু করেছেন৷ বিভিন্ন জেলা থেকে যে লোকজন আসছেন তার সিংহভাগই আসছেন ট্রেনে৷ হয় শিয়ালদহ কিংবা হাওড়াতে নেমে তারপর যে যার মতো করে ধর্মতলার পথে৷

এত মানুষ একসঙ্গে শহরে৷ এমনিতেই এত গরম৷ তার মধ্যে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের যাতে খাবারের অসুবিধা না হয় তার জন্য শুক্রবার সকাল থেকেই ঘুসুড়ির শ্যাম গার্ডেনে চলছে রান্নাবান্না৷ সকলের রাত্রিযাপন ও খাওয়াদাওয়ার বন্দোবস্ত করা হয়েছে দলের পক্ষ থেকে। মেনুতে রয়েছে সাদা ভাত, ডিমের ঝোল৷ কয়েক হাজার কর্মীর খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উত্তর হাওড়ার বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লা, মেয়র পারিষদ সদস্য গৌতম চৌধুরীরা নিজে দাঁড়িয়ে থেকে সব তদারকি করছেন৷ মাঝেমধ্যে তাঁরাও হাত লাগাচ্ছেন রান্নার কাজে৷